ফের মহামারি করোনা সংক্রমণের কেন্দ্রবিন্দুতে ইউরোপ



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইউরোপ আবারও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সতর্ক করে জানিয়েছে, মহাদেশ জুড়ে করোনার প্রকোপ আবারও বাড়ছে।

এক সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও ইউরোপের প্রধান হ্যান্স কলুজ বলেছেন, মহাদেশটি ফেব্রুয়ারির মধ্যে আরও অর্ধ মিলিয়ন মৃত্যু দেখতে পারে। আর এর জন্য তিনি অপর্যাপ্ত ভ্যাকসিনের বিষয়টিকে দায়ী করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের কৌশলগত কিছু পরিবর্তন করা প্রয়োজন যেন করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে আবারও প্রথম স্থানে যা চলে যায়’। শেষ কিছু মাস ধরে ইউরোপ মহাদেশে করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। স্পেনে যেখানে দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণকারী ৮০% সেখানে জার্মানিতে কমে তা ৬৮%-৬৬%। এছাড়া এখনও ইউরোপের মধ্য এবং পূর্বের দেশগুলোতে টিকা গ্রহণকারীদের সংখ্যা অনেক কম। ২০২১ সালের অক্টোবরে সম্পূর্ন ভ্যাকসিন গ্রহণকারী রাশিয়ানের সংখ্যা মাত্র ৩২%।

মি কলুজ করোনার প্রকোপ বৃদ্ধির জন্য ইউরোপীয় অঞ্চলের জনসাধারণের শিথিলতাকেও দায়ী করেছেন। যা মধ্য এশিয়ার ৫৩টি দেশকে সংযুক্ত করে। এখন পর্যন্ত ডব্লিউএইচও এর এই অঞ্চলগুলোতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ১.৪ মিলিয়নে এসে ঠেকেছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় জার্মানিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৪ হাজার। যা যুক্তরাজ্যের আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় কিছুটা কম। কেননা একই সময়ের মধ্যে যুক্তরাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ হাজার।

করোনা সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউয়ে বিপুল সংখ্যক মৃত্যু বিশ্ব স্বাস্থ্য ব্যবস্থার উপরে চাপ তৈরি করতে পারে বলে ধারণা করছেন জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। এক সপ্তাহ আগে যেখানে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ১২৬ জন, এখন তা বেড়ে হয়েছে ১৬৫ জন।

জার্মানির আরকেআই ইন্সটিটিউটের লোথার উইলার ভয়ংকর সংখ্যার কথা বলেছে। তিনি বলেন, ‘আমরা যদি এখই ব্যবস্থা না নেই, তাহলে এই চতুর্থ ঢেউ আমাদের জন্য আরও দুর্ভোগ নিয়ে আসবে’। জার্মানিদের মধ্যে এখন পর্যন্ত যারা ভ্যাকসিন গ্রহণ করেনি তাদের মধ্যে ৬০ বছর বয়সীদের সংখ্যা ৩ মিলিয়নের চেয়ে বেশি এবং বর্তমানে তারা বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে।

তবে হ্যান্স কলুজ উল্লেখ করেছেন, কোভিড সংক্রমণ বৃদ্ধি শুধুমাত্র জার্মানিতে সীমাবদ্ধ নয়। গতসপ্তাহে নাটকীয় ভাবে করোনায় মৃত্যু সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে রাশিয়ায়। ৮১০০ জন মারা গেছে রাশিয়ায় এবং ইউক্রেনে মৃত্যুর সংখ্যা ৩৮০০ জন। উভয় দেশেই ভ্যাকসিন গ্রহণকারীর হার খুবই কম। গত ২৪ ঘণ্টায় ইউক্রেনে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৭,৩৭৭ জনের মধ্যে।

রোমানিয়াতে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর সংখ্যা দাড়িয়েছে ৫৯১। এদিকে হাঙ্গেরিতে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি বেড়ে ৬২৬৮ হয়েছে। এদিকে ডাঃ রায়ান বলেছেন, ‘এই মুহুর্তে আমরা নরকের নিচে দিয়ে যাচ্ছি। কিছু মানুষ ভ্যাকসিন গ্রহণ করলেই এই মহামারি শেষ হয়ে যাবে বিষয়টি এমন নয়’।

এদিকে এই সপ্তাহে ডাচ সরকার বলেছেন, এখন থেকে সকল স্থানে মাস্ক পড়া এবং সামাজিক দুরতও বজায় রাখার বিষয়টি সক্রিয় করতে হবে। কেননা গত এক সপ্তাহে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা বেড়েছে ৩১% হয়েছে।

অ্যান্টিভাইরাল ওষুধে মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ রোধ সম্ভব: ল্যানসেট



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নতুন আতঙ্কের নাম হয়ে উঠেছে ‘মাঙ্কিপক্স’। বিরল এই ভাইরাস সম্পর্কে খুব একটা স্পষ্ট ধারণা ছিল না বিশ্ববাসীর। কারণ এই ভাইরাসটি মধ্য ও পশ্চিম আফ্রিকার প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোতে দেখা যেত। কিন্তু সম্প্রতি ইউরোপ, আমেরিকা, কানাডাসহ বেশ কিছু দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে চিন্তায় পড়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও।

তবে, যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস বলছে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত বেশিরভাগ মানুষ কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ২০১৮ থেকে ২০২১ সালের মধ্যে যুক্তরাজ্যে মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত সাতজন নিয়ে গবেষণা চালানো হয়। গবেষণার সমীক্ষা সম্প্রতি ল্যানসেট পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়। এই গবেষণা অনুযায়ী, এমন কিছু ‘অ্যান্টিভাইরাল’ ওষুধ আছে যা প্রয়োগ করলে মাঙ্কিপক্সের উপসর্গগুলিকে প্রশমিত করা সম্ভব। শুধু তাই নয়, এই সব ওষুধের প্রয়োগ করে রোগীরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেছেন— এমনই দাবি গবেষকদের। এ ক্ষেত্রে রোগীদের উপর দুটি ভিন্ন অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ— ব্রিনসিডোফোভির এবং টেকোভিরিমাট প্রয়োগ করেই আশানুরূপ ফলাফল পেয়েছেন গবেষকরা।

মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ ঠেকাতে গবেষকরা ব্রিনসিডোফোভির নামক ওষুধটির কার্যকারিতা সম্পর্কে অনেকটা নিশ্চিত হলেও টেকোভিরিমাটের বিষয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন আছে বলে মনে করছেন। গবেষকরা আরও জানিয়েছেন, রক্ত এবং লালারসের নমুনা পরীক্ষা করলেই শরীরে মাঙ্কি পক্সের উপস্থিতি টের পাওয়া সম্ভব।

এই ভাইরাসে আক্রান্তদের শরীরে প্রাথমিক উপসর্গের মধ্যে রয়েছে জ্বর, মাথাব্যথা, ফুসকুড়ি, র‍্যাশ। মুখ থেকে শুরু হয়ে শরীরের বাকি অংশে ছড়িয়ে পড়বে এই র‍্যাশ। তবে, সহজে মানুষের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা খুবই বিরল।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, আক্রান্ত ব্যক্তির কাছাকাছি থাকলে বেড়ে যেতে পারে সংক্রমণের আশঙ্কা। শ্বাসনালি, ক্ষত স্থান, নাক, মুখ কিংবা চোখের মাধ্যমে এই ভাইরাস প্রবেশ করতে পারে সুস্থ ব্যক্তির দেহেও। যৌন মিলনের মাধ্যমেও এই রোগ ছড়িয়ে পড়ে।

মাঙ্কিপক্সের কোনো নির্দিষ্ট ভ্যাকসিন নেই, তবে বেশ কয়েকটি দেশ বলেছে যে তারা গুটিবসন্তের ভ্যাকসিন মজুদ করছে, যা সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রায় ৮৫% কার্যকর। কারণ দুটি ভাইরাস প্রায় একই রকম।

আমেরিকার একদল বিশেষজ্ঞের মতে, স্মল পক্সের টিকার মাধ্যমেও এই রোগের সংক্রমণ ঠেকিয়ে রাখা সম্ভব।

;

জর্জ বুশকে হত্যার ষড়যন্ত্র বানচাল করার দাবি এফবিআইয়ের



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশকে হত্যার ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে দেওয়ার দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালনের সময় ইরাকে সামরিক অভিযান পরিচালনা করার প্রতিশোধ হিসেবে সাবেক এই প্রেসিডেন্টকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে এফবিআই।

সন্দেহভাজন ওই ষড়যন্ত্রকারী ইরাকি নাগরিক এবং যুক্তরাষ্ট্রে তিনি রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী। মার্কিন বিচার বিভাগের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

ওই ষড়যন্ত্রকারী এখন এফবিআইয়ের হেফাজতে রয়েছে। মঙ্গলবার ওহিওর একটি ফেডারেল আদালতে তাকে তোলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও অঙ্গরাজ্যের রাজধানী কলম্বাসের ফেডারেল আদালতে দাখিল করা এফবিআইয়ের হলফনামায় বলা হয়েছে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা অভিযুক্ত ওই ইরাকি নাগরিকের নাম শিহাব আহমেদ শিহাব। ৫২ বছর বয়সী এই ব্যক্তি নিজের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য অন্য ইরাকিদেরও যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করাতে চেয়েছিলেন।

;

আরব আমিরাতে মাঙ্কিপক্সের প্রথম রোগী শনাক্ত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নতুন আতঙ্কের নাম হয়ে উঠেছে ‘মাঙ্কিপক্স’। বিরল এই ভাইরাস সংযুক্ত আরব আমিরাতেও ধরা পড়েছে। দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস এ তথ্য জানায়।

দেশটির স্বাস্থ্য ও প্রতিরোধ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ২৯ বছর বয়সী আক্রান্ত ওই ব্যক্তি সম্প্রতি পশ্চিম আফ্রিকা ভ্রমণ করে এসেছেন। তিনি বর্তমানে দেশে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছেন।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ নাগরিকদের আশ্বস্ত করে বলা হয়েছে, সংক্রমণ প্রতিরোধে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বিভিন্ন দেশে মাঙ্কিপক্স ছড়িয়ে পড়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বিষয়টি 'নিবিড়ভাবে' পর্যবেক্ষণ করছিল উল্লেখ করে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, তাদের পূর্ব প্রস্তুতি জোরালো থাকায় আমিরাতে মাঙ্কিপক্স শনাক্ত সম্ভব হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের বার্তায় বলা হয়, সন্দেহভাজনদের শনাক্তের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মহামারি প্রতিরোধে কারিগরি উপদেষ্টা দল আগেভাগেই রোগ শনাক্তকরণ, রোগীর যথাযথ চিকিৎসা ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দিকনির্দেশনা দিয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বাসিন্দাদের গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বানের পাশাপাশি মন্ত্রণালয় সবাইকে সরকারি তথ্য জেনে নিতে বলেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ২৪ মে পর্যন্ত ২৫০ জনের শরীরে মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয়েছে।

সংক্রামিত ব্যক্তি বা প্রাণীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের মাধ্যমে বা ভাইরাস দ্বারা দূষিত উপাদানের মাধ্যমে এই রোগটি মানুষের মধ্যে সংক্রমিত হয়।

;

সন্দেহভাজন বন্দুকধারী নিজের দাদিকেও গুলি করে



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্দুকধারীর গুলিতে ১৯ শিক্ষার্থীসহ ২১ জন নিহত হয়েছেন। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী স্কুলে ঢোকার আগে নিজের দাদিকেও গুলি করে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৪ মে) টেক্সাসের ইউভালদে শহরের রব এলিমেন্টারি স্কুলে এই গুলির ঘটনা ঘটে।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থার তিনটি সূত্র সিএনএনকে জানিয়েছে, সন্দেহভাজন খুনির গুলিবিদ্ধ দাদিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

টেক্সাস ডিপার্টমেন্ট অব পাবলিক সেফটির সার্জেন্ট এরিক এস্ট্রাডা সিএনএন-কে জানিয়েছেন, বর্তমানে হাসপাতালে থাকা খুনির দাদির অবস্থা সংকটাপন্ন।

সন্দেহভাজন সালভাদর রামোসের একজন সাবেক সহপাঠী জানান, হামলার কয়েকদিন আগে বন্দুকধারী তাকে তার কাছে থাকা একটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং গোলাবারুদ ভর্তি একটি ব্যাগের ছবি পাঠায়।

;