‘চাকরি পেতে বাংলা হতে হবে ঠিকানা, জানতেই হবে বাংলা ভাষা’



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

  • Font increase
  • Font Decrease

পশ্চিমবঙ্গে কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে রাজ্যের মানুষকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু রাজ্যে থাকাই নয়, বাংলা ভাষার ব্যবহার জানা যে এই রাজ্যে চাকরির ক্ষেত্রে প্রাধান্য পাবে, তাও স্পষ্ট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) মালদহে এক সরকারি বৈঠকে মমতা প্রশাসনিক কর্তাদের এমন নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, কর্মসংস্থান তৈরি হলে এই রাজ্যের ছেলেমেয়েরা যাতে অগ্রাধিকার পান সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। শুধু পশ্চিমবঙ্গেই নয়, সব রাজ্যেরই এমন নীতি গ্রহণ করা উচিত। আমি সব রাজ্যের জন্যই বলছি, সেই রাজ্যের ছেলেমেয়েরা যেন চাকরিটা পায়। বাংলা হলে বাংলার ছেলেমেয়েরা, যারা এই রাজ্যে বসবাস করেন, তিনি রাজবংশী, কামতাপুরি বা হিন্দিভাষী হতে পারেন, তাতে কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু বাংলা ভাষা জানতে হবে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিহারে বিহারের লোকেরা পাবে। তা না হলে বিহারের লোকেরা বিহারের সরকারকে ধরবে। উত্তরপ্রদেশে নিশ্চয়ই উত্তরপ্রদেশের লোকেরা পাবে। সব রাজ্যেই তার নিজেদের ছেলেমেয়েরা যেন কর্মসৃষ্টিতে কর্মটা পায়, তা নজর রাখতে হবে।

গত বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা ও বাঙালি বিষয়কে সামনে রেখেই ভোট লড়েছিল তৃণমূল। বিজেপি নেতাদের ‘বহিরাহগত’ বলার পাশাপাশি গেরুয়া শিবিরের থেকে বাংলার সাংস্কৃতিক দূরত্বের কথা তুলে ধরে তৃণমূল। বিপুল জয়ের পরে মমতা বুধবার বুঝিয়ে দিলেন, সরকারি কাজের ক্ষেত্রে এ বার বাংলার ছেলেমেয়েদের অগ্রাধিকারের বিষয়টি নিশ্চিত করতে চাইছে তার সরকার। তিনি বলেন, বাংলা ভাষা জানতেই হবে। সেই সঙ্গে চাকরিপ্রার্থীদের ঠিকানাও হতে হবে বাংলা।

পদ্মভূষণ প্রত্যাখ্যান করলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মোদি সরকারের দেওয়া পদ্মভূষণ সম্মান প্রত্যাখ্যান করলেন বর্ষীয়ান সিপিআইএম নেতা ও পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের পরিবার বরাত দিয়ে হিন্দুস্তান টাইমস এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় পদ্ম পুরস্কারের তালিকা প্রকাশ করে মোদি সরকার। সেই তালিকাতেই নাম রয়েছে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের। কিন্তু তাঁর সম্মান গ্রহণ নিয়ে শুরু থেকেই কৌতহল ছিল। শেষ পর্যন্ত প্রবীণ বাম নেতার পরিবাস সূত্রে জানা যায় যে, বুদ্ধদেববাবু পদ্মভূষণ সম্মান গ্রহণ করেছেন না।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমি পদ্মভূষণ পুরস্কার সম্পর্কে কিছুই জানি না, কেউ আমাকে এ বিষয়ে বলেনি। আমাকে যদি পদ্মভূষণ দেওয়া হতো, তাহলে আমি তা প্রত্যাখ্যান করতাম।

প্রকাশিত তালিকায় উল্লেখ ছিল সামাজিক ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে পদ্ম সম্মানে সম্মানিত করা হবে প্রবীণ এই বাম নেতাকে।

শারীরিক অসুস্থতার কারণে বিগত কয়েক বছর সক্রিয় রাজনীতি থেকে দূরে রয়েছেন প্রবীণ এই সিপিআইএম নেতা। তবুও একুশের নির্বাচনের আগে বাম-কংগ্রেসের ধর্মনিরপেক্ষ, গণতান্ত্রিক জোটকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বুদ্ধবাবুর কণ্ঠে একটি অডিও প্রকাশিত হয়েছিল।

ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টির (মার্কসবাদী) পলিটব্যুরোর সাবেক সদস্য বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, ২০০২ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।

;

ইরানে গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে ফরাসি নাগরিককে ৮ বছরের কারাদণ্ড



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বেঞ্জামিন ব্রিয়ের

বেঞ্জামিন ব্রিয়ের

  • Font increase
  • Font Decrease

মঙ্গলবার ইরানের একটি আদালত ফরাসি নাগরিক বেঞ্জামিন ব্রিয়েরকে গুপ্তচরবৃত্তির জন্য দোষী সাব্যস্ত করে আট বছর এবং আট মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে। ফরাসি টেলিভিশন চ্যানেল বিএফএম টিভি এ তথ্য দিয়েছে।

অনুমতি ছাড়া ড্রোন দিয়ে ছবি ও ভিডিও ধারণের দায়ে তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে ইরান আদালত।

২০২০ সালের মে মাসে তুর্কমেনিস্তান-ইরান সীমান্তের কাছে মরুভূমিতে ড্রোন দিয়ে ছবি ও ভিডিও ধারণ করেছিলেন বেঞ্জামিন। তখন থেকেই ৩৬ বছর বয়সী বেঞ্জামিন ইরানে কারাবন্দি আছেন।

তবে ফ্রান্সে বেঞ্জামিনের আইনজীবীর তরফ থেকে এ বিষয়ে কোন বিবৃতি জানা যায়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইরানের অভিজাত বিপ্লবী বাহিনী গুপ্তচরবৃত্তি এবং নিরাপত্তা লঙ্ঘনের অভিযোগে বেশকিছু দ্বৈত নাগরিক ও বিদেশিকে গ্রেফতার করেছে।

যদিও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা অভিযোগ করেছে যে, এভাবে বারবার গ্রেফতারের মাধ্যমে অন্যান্য দেশের কাছ থেকে ছাড় আদায়ের চেষ্টা করছে ইরান।

ইরানের সঙ্গে ফ্রান্সসহ পারমাণবিক শক্তিধর দেশগুলোর স্বাক্ষরিত পারমাণবিক চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করার প্রচেষ্টা যখন চলছে, ঠিক তখনই ফরাসি ওই নাগরিক গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে কারাদণ্ড দেওয়া হলো। ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত ওই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে ২০১৮ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর চুক্তি ঘিরে অচলাবস্থা তৈরি হয়।

;

ঝড়ের আঘাতে মাদাগাস্কার ও মোজাম্বিকে ৩৭ জন নিহত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পূর্ব আফ্রিকায় মৌসুমি ঝড় ‘আনা’র আঘাতে মাদাগাস্কারে কমপক্ষে ৩৪ জন, মোজাম্বিকে ৩ জন  প্রাণ হারিয়েছে এবং মালাওইর অনেক এলাকা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে বলে মঙ্গলবার এই তিন দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। মাদাগাস্কারের পূর্ব উপকূল থেকে এই ঝড়ের সৃষ্টি হয়েছে।

‘আনা’র প্রভাবে সৃষ্ট বন্যার দ্বীপটির বিভিন্ন এলাকা ভেসে গেছে, কাদায় ডুবে গেছে রাজধানী আন্তানানারিভোর বিভিন্ন এলাকা। খবর এএফপির।

দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের ইউনিট পরিচালক জন রাজাফিমান্দিম্বি বলেছেন,  রাতভর উদ্ধারকাজ চলেছে। এখন পর‌্যন্ত ৩৪ জন মারা গেছে। এক সপ্তাহ ধরে সেখানকার প্রায় ৬৫ হাজার বাসিন্দা গৃহহীন। এ ছাড়া দেশটির যে জেলাগুলো অপেক্ষাকৃত নিচু, সেগুলোয় এখনো সতর্কবার্তা জারি রাখা হয়েছে।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর ডিজাস্টার রিস্ক ম্যানেজমেন্টের দেওয়া তথ্য অনুসারে, দেশটির ৩ হাজার ৮০০ মানুষ কোনো না কোনোভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া দেশটির একটি ক্লিনিক ও স্কুলের ১৬টি শ্রেণিকক্ষ ধসে গেছে।

ঝড় আনা প্রসঙ্গে জাতিসংঘের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এই ঝড়ের কারণে বন্যা ব্যাপক আকার ধারণ করতে পারে। এতে ভৌত অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। অনেকে গৃহহীন হতে পারে।

এদিকে ঝড় আনার কারণে গত সোমবার মালাওইর অধিকাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ ছিল না। সেখানে বন্যার পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ার বিভিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তাদের জেনারেটর বন্ধ রেখেছে।

;

গুজব ছড়াবেন না বাবা সুস্থ আছেন: মেরিনা মাহাথির



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ

  • Font increase
  • Font Decrease

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের মেয়ে দাতিন পাদুকা মেরিনা মাহাথির জানিয়েছেন, বাবা আগের চেয়ে সুস্থ আছেন। তার স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে। আমাদের তিনি কথা বলতে পারছেন।

স্বাস্থ্যের উন্নতি হলেও বিশেষজ্ঞের যত্ন নেওয়ার জন্য তিনি হাসপাতালে থাকবেন। বাবা সকলকে উদ্বিগ্ন না হওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন বলে জানিয়েছেন মেরিনা।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে নিজের বিবৃতিতে মেরিনা বলেছেন, ‘সূত্র যাচাই-বাছাই না করে বাবার শারীরিক অবস্থা নিয়ে কোনো ধরনের গুজব ছড়াবেন না। তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সময়ে সময়ে ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউট এবং আমরা তার পরিবার আপনাদের অবগত করতে থাকব।’

আজ সারাদিন মালয়েশিয়ার সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই মাহাথিরের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে বলে বিভিন্ন গুজব ছড়ান। এরই জের ধরে এমন বিবৃতি দিয়েছেন মেরিনা মাহাথির।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২২ জানুয়ারি) মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদকে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
৯৬ বছর বয়সী এ নেতা এর আগে ৭ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসা শেষে ১৩ জানুয়ারি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন।


মালয়েশিয়ায় সবচেয়ে বেশি সময় ধরে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মাহাথির। এর আগে তার বাইপাস সার্জারিও করতে হয়েছিল । তবে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর শরীরে কোন কোন উপসর্গ দেখা দিয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সূত্র- সিএনএ

;