হিমাচলে খাদে বাস, স্কুলছাত্রসহ নিহত ১৬



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের হিমাচল প্রদেশের কুল্লুতে একটি বাস খাদে পড়ে স্কুলছাত্রসহ ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খাদে পড়ে যাওয়া বাসটির সামনের দিকটা পুরোপুরি দুমড়েমুচড়ে গিয়েছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানা গেছে।

কুল্লুর ডেপুটি কমিশনার আশুতোষ গর্গ জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সাঁজগামী বাসটি জংলা গ্রামের কাছে খাদে পড়ে যায়। উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। তিনি জানান, আহতদের দ্রুত নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়, দুর্ঘটনার সময় বাসে ৪০ জন স্কুল পড়ুয়া ছাত্র ছিল।

হিমাচল প্রদেশের কুল্লুতে বাস দুর্ঘটনাকে হৃদয় বিদারক বলে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই দুঃসময়ে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আমি সমবেদনা জানাই। আশা করি আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। স্থানীয় প্রশাসন ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহায়তা দিচ্ছে বলে জানান মোদি।

হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর টুইট করে লেখেন, পুরো প্রশাসন ঘটনাস্থলে রয়েছে। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। যারা মারা গেছেন ঈশ্বর তাদের আত্মাকে শান্তি প্রদান করুন এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে শক্তি দিন।

পার্টিতে ফিনিশ প্রধানমন্ত্রীর উদ্দাম নৃত্যের ভিডিও ভাইরাল



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সান্না মারিনের (৩৬) একটি ভিডিও ফাঁস হয়েছে। যেখানে দেখা গেছে ৩৬ বছর বয়সী এই প্রধানমন্ত্রী বন্ধুদের সঙ্গে পার্টিতে উদ্দাম নৃত্য করছেন। এ নিয়ে ফিনল্যান্ডেই ওঠেছে সমালোচনার ঝড়।

অনেকে বলছেন, যখন ফিনল্যান্ড গত ৩৮ বছরের মধ্যে সবচেয়ে অর্থনৈতিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে এবং বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষ বিপাকে পড়েছেন তখন পার্টিতে প্রধানমন্ত্রীর এমন নৃত্য করার বিষয়টি সমীচীন নয়।

দেশটির বিরোধী দলগুলো সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রীর ড্রাগ পরীক্ষা করার দাবি করেছেন। কারণ তাদের শঙ্কা তিনি মাদকাসক্ত।

তবে ফিনিশ প্রধানমন্ত্রী মাদক গ্রহণের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেছেন, তিনি কেবলমাত্র মদ্যপান করেছিলেন এবং উদ্ধতভাবে পার্টি করেছিলেন।

ভিডিও ভাইরাল হওয়ার বিষয়ে ফিনিশ প্রধানমন্ত্রী আন্না মারিন বলেন, আমি জানতাম বিষয়টি ভিডিও করা হচ্ছে; কিন্তু এটি জনসম্মুখে প্রকাশ করা হয়েছে এজন্য আমি ব্যথিত হয়েছি।

ফিনিশ প্রধানমন্ত্রীর উদ্দাম নৃত্য

তিনি আরও বলেন, আমি নেচেছি, গেয়েছি এবং পার্টি করেছি। যা অবশ্যই বৈধ। আমি কোথাও যাইনি যেখানে মাদক বা মাদকাসক্ত ব্যক্তি আছে। আমার পারিবারিক জীবন আছে। আমার কাজের জীবন আছে এবং বন্ধুদের সঙ্গে সময় কাটানোর অলস সময় আছে। আমার বয়সী সবাই যে রকমটি করে।

তিনি জানান, নিজের মধ্যে কোনো পরিবর্তন আনবেন না। এবং তার আশা বাকিরা এটি স্বাভাবিকভাবে নেবে।

তবে ফিনল্যান্ডের বিরোধী দলীয় নেতা রিক্কা পুরা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উচিত স্বেচ্ছায় ড্রাগ টেস্ট করা। কারণ তাকে নিয়ে সন্দেহ আছে। তবে আবার কয়েকজন বিরোধী দলের নেতা জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে মিডিয়া ও রাজনীতিবীদরা বেশি আলোচনা করছেন। যেটির কোনো প্রয়োজন নেই।

ফিনিশ প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, তিনি মাদক গ্রহণ করেননি এবং পরীক্ষা করাতে তার কোন সমস্যা নেই।

সান্না মারিনে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে ক্ষমতায় আছেন এবং তার দলের সমর্থন ধরে রেখেছেন।

;

আলজেরিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে নিহত ২৬



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আলজেরিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে অন্তত ২৬ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ডজন খানেক।

বুধবার (১৭ আগস্ট) দেশটির সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসি।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামেল বেলদজউদ বলেছেন, তিউনিসিয়ার সীমান্তবর্তী এল টারফে ২৪ জন এবং সেতিফে একজন মা ও মেয়ে মারা গেছেন।

দেশটির অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা হেলিকপ্টার দিয়ে পানি ও রাসায়নিক ছিটিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে বিভিন্ন প্রদেশের প্রায় ৩৫০ জন বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

আলজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলে প্রতি বছর দাবানলের ঘটনা ঘটে। গত বছর দাবানলে ৯০ জন লোক মারা যান এবং এক লাখ হেক্টরের বেশি বনভূমি পুড়ে যায়।

আলজেরিয়া সরকার বলছে, উদ্দেশ্যমূলকভাবে আগুন লাগানো হয়েছে। তীব্র দাবদাহ ও শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে তা দাবানলে রূপ নিয়েছে।

;

কাবুলে মসজিদে বিস্ফোরণ, বহু হতাহতের শঙ্কা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের একটি মসজিদে প্রচণ্ড বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বহু হতাহতের আশঙ্কা করছে পুলিশ। খবর বিবিসির।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, বুধবার (১৭ আগস্ট) সন্ধ্যার নামাজ চলাকালে কাবুলের ওই মসজিদে হামলার ঘটনা ঘটে। ইমারজেন্সি নামের একটি বেসরকারি সংস্থা জানিয়েছে, মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তত তিনজন প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও কয়েক ডজন মানুষ।

তালেবানের কাবুল পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরানকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, রাজধানীর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে একটি মসজিদে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। খবরে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে সিদ্দিকী মসজিদের ইমামও রয়েছেন।

তবে কারা হামলা করেছে এখনো তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এক সপ্তাহ আগে কাবুলে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে তালেবানপন্থী একজন বিশিষ্ট আলেম নিহত হন। তখন ওই হামলার দায় স্বীকার করে ইসলামিক স্টেট (আইএস) গোষ্ঠী।

পুলিশের মুখপাত্র খালিদ জাদরান বলেন, রাজধানীর অদূরে ওই বিস্ফোরণস্থলে ইতিমধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের পাঠানো হয়েছে।

কাবুলে কার্যক্রম পরিচালনাকারী ইতালিভিত্তিক সংস্থা ইমারজেন্সি বলেছে, এখন পর্যন্ত তিনজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা গেছে। বেসরকারি সংস্থাটি জানিয়েছে, বিস্ফোরণে ২৭ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে পাঁচটি শিশু রয়েছে। যার মধ্যে একজনের বয়স সাত বছর।

তালেবানের গোয়েন্দা বিভাগের একজন কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, বিস্ফোরণে ৩৫ জন আহত অথবা নিহত হয়েছে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শক্তিশালী একটি বিস্ফোরণের শব্দ শুনেছেন তারা। এসময় আশেপাশের ভবনগুলোর জানালার কাঁচ ভেঙে যায়।

;

থাইল্যান্ডে একযোগে ১৭ স্থানে বিস্ফোরণ



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
থাইল্যান্ডে একযোগে ১৭ স্থানে বিস্ফোরণ

থাইল্যান্ডে একযোগে ১৭ স্থানে বিস্ফোরণ

  • Font increase
  • Font Decrease

থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলের অন্তত ১৭টি স্থানে একযোগে বিস্ফোরণ ও আগুনের ঘটনা ঘটেছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, দৃশ্যত এটি একটি সমন্বিত হামলা। এতে অন্তত সাত জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পাত্তানি, ইয়ালা, নারাথিওয়াতে মঙ্গলবার মধ্যরাতের পর তিনটি প্রদেশের নিত্যপণ্যের দোকান ও গ্যাস স্টেশন লক্ষ্য করে এসব বোমা ও আগুন হামলা চালানো হয়। এসব হামলা বুধবার ভোর পর্যন্ত চলে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এখন পর্যন্ত কোনও সংগঠন এসব হামলার দায় স্বীকার করেনি।

ইন্টারনাল সিকিউরিটি অপারেশনস কমান্ড (আইএসওসি) অঞ্চল ৪ অনুসারে হামলাকরীর লক্ষ্য ছিল এই অঞ্চলের অর্থনীতিকে ব্যাহত করা।

আইসোক অঞ্চল ৪ -এর উপ-পরিচালক মেজর জেনারেল প্রমোট প্রম-ইন বলেন, পাত্তানিতে দুটি, ইয়ালায় ছয়টি এবং নারাথিওয়াতে নয়টি হামলা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে পাত্তানির নং চিকের। সেখানে একটি ব্যাং চাক পেট্রোল স্টেশন পুড়ে গেছে।

থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলে মালয়েশিয়া সীমান্তবর্তী প্রদেশগুলোতে দীর্ঘদিন ধরেই কম মাত্রার বিদ্রোহী তৎপরতা চলছে। মূলত মুসলিম অধ্যুষিত পাত্তানি, ইয়ালা, নারাথিওয়াত এবং শঙ্খলা প্রদেশের অংশবিশেষে স্বাধীনতার দাবির বিরুদ্ধে লড়াই করছে থাই সরকার।

২০০৪ সাল থেকে শুরু হওয়া এ সংঘাতে সাত হাজার তিনশ’রও বেশি মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে বলে জানিয়েছে সহিংসতা পর্যবেক্ষণকারী গ্রুপ ডিপ সাউথ ওয়াচ। এ সংঘাত নিরসনে ২০১৩ সালে শান্তি আলোচনা শুরু হলেও বারবার তা বিঘ্নিত হয়েছে।

পিইউএলও এর নেতা কস্তুরি মাখোতা হামলা প্রসঙ্গে বলেছেন এর সঙ্গে তাদের সংগঠনের কোনও সম্পৃক্ততা নেই।

;