যুক্তরাজ্যে উদ্ধার ৩৯ মরদেহের সবাই চীনের নাগরিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাজ্যে একটি কন্টেইনারবাহী লরি থেকে উদ্ধার করা ৩৯ মরদেহের সবাই চীনের নাগরিক বলে নিশ্চিত করেছে এসেক্স পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, এ ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার মো রবিনসন নামে লরি চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে এসেক্স পুলিশ রবিনসনকেই (আইরিশ যুবক) এই হত্যাকাণ্ডের প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার করে। 

এর আগে বুধবার (২৩ অক্টোবর) ওয়াটারগ্লেড এসেক্স ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের পূর্ব অ্যাভিনিউয়ের একটি লরিতে থাকা কন্টেইনার থেকে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, আয়ারল্যাণ্ডের লরেভ্যালি শহরের কাউন্টি আর্মাগ গ্রামে লরি চালক মো রবিনসনের পরিবার থাকেন। এ ঘটনায় লরি চালক রবিনের পাশের দুটি বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে দেশটির পুলিশ।

গ্রেফতার লরি চালক মো রবিনসন

এ নিয়ে আয়ারল্যান্ডের জাতীয় অপরাধ সংস্থা জানিয়েছে, সংঘবদ্ধ কোনো অপরাধী চক্র এর সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। তাদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত লন্ডনে অবস্থানরত চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

পুলিশ আরও জানায়, এখনও পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। উদ্ধার হওয়া মরদেহের ৩৮ জনই প্রাপ্তবয়স্ক এবং একজন কিশোর। লরিটি বেলজিয়াম থেকে টেমস নদীযোগে পারফ্লিট শহর হয়ে এসেক্সে প্রবেশ করে।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রবিনের ছবি ভাইরাল হলে তার পরিবার এ বিষয়টি জানতে পারে। রবিনের বাবা বিবিসি'তে দেওয়া এক সাক্ষাৎতে বলেছেন, আমি ভেবেছিলাম পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে তাকে গ্রেফতার করেছে। প্রথমে শুনে আমি খুবই অবাক হই। যদিও বিষয়টি আমি এখনও মেনে নিতে পারছি না। তবে আমি চাই এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি হোক।

আরও পড়ুন: যুক্তরাজ্যে কন্টেইনার লরি থেকে ৩৯ মরদেহ উদ্ধার

আপনার মতামত লিখুন :