সিআইএ'র গোয়েন্দার ১৯ বছরের কারাদণ্ড



আন্তর্জাতিক ডেস্ক বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আমেরিকান গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ'র সাবেক এক কর্মকর্তাকে ১৯ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে মার্কিন আদালত। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গোপন তথ্য চীনকে দেওয়ার মামলায়  তাকে এ সাজা দেওয়া হয়।

প্রসিকিউটাররা জানায়, 'জেরি চুং শিং লি (৫৫) ১৯৯৪ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার হয়ে কাজ করেছেন। ২০১০ সালে হংকংয়ে চলে আসেন তিনি। এরপর হংকংয়ে অবস্থান করা চীনা এজেন্টরা তাকে চীনের এজেন্ট হিসেবে কাজ করার জন্য বলেন। আর তাতে সে রাজি হয় এবং অর্থের বিনিময়ে মার্কিন তথ্য ও প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কথা বেইজিংকে জানায়। যার প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের নিউইয়র্ক জেএফকে বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।'

তারা আরও বলেন, লি'র গুপ্তচরবৃত্তির প্রমাণ তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে গেলে দেখা যায়। লি'র তথ্যর কারণে ২০১০-২০১২ সালের মধ্যে মার্কিন তথ্যদাতাদের নেটওয়ার্ক সনাক্ত করে ভেঙ্গে দেয় চীন।'

এর আগে চলতি বছরের মে মাসে নিজ দোষ স্বীকার করেন লি। কিন্তু চীনা এজেন্টদের কাছ থেকে অর্থ নেওয়ার বিষয়টি তখনও প্রমাণ হয়নি।

এ বিষয়ে এফবিআই'র সহকারী পরিচালক টিমোথি স্লটার বলেন, 'লি লোভের কারণে নিজ দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে এবং তার প্রাক্তন সহকর্মীদের ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছিলেন।'

তিনি আরও বলেন, 'তার বিশ্বাসঘাতকতা ও অপরাধের গুরুতরতা আজকের সাজা দ্বারা প্রমাণিত হয়।'

এর আগে ২০১৭ সালে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস জানায়, লি'র তথ্যর কারণে চীনে অবস্থিত সিআইএ'র প্রায় ১২ জন গুপ্তচরকে হত্যা করেছে চীনা সরকার। এছাড়া কমপক্ষে আরও ছয়জনকে কারাদণ্ড দিয়েছে চীন।

উল্লেখ্য, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ'র এজেন্টদের সাজা নতুন নয়। এর আগে মার্কিন গোপন তথ্য চীনকে দেওয়ার অভিযোগে সাজা হয় আরও দুই সিআইএ'র এজেন্টের।