কারাগারেই মারা যেতে পারেন অ্যাসাঞ্জ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, ছবি: সংগৃৃহীত

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, ছবি: সংগৃৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে প্রায় সাত বছর আটকা ছিলেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। এরপর এ বছরের ১১ এপ্রিল তাকে গ্রেফতার করে লন্ডন পুলিশ। দীর্ঘদিন ধরে টানা বন্দী থাকায় শারীরিক অবস্থার বেশ অবনতি ঘটেছে অ্যাসাঞ্জের। এতটাই অবনতি হয়েছে ডাক্তাররা আশঙ্কা করছেন জেলেই মারা যেতে পারেন উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) ৬০ জন চিকিৎসক ১৬ পৃষ্ঠার একটি খোলা চিঠিতে এ আশঙ্কা জানিয়েছেন। চিঠিটি ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেলের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, শারীরিক অবস্থা এতটাই খারাপ যে কারাগারে মারা যেতে পারেন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। আর চিঠিতে তাকে বেলমারস জেল থেকে বের করে লন্ডন টিচিং হাসপাতালে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়।

আদালতে অ্যাসাঞ্জকে দেখা প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, অক্টোবরের ২১ তারিখে তাকে আদালতে ওঠানো হলে তার বেহাল অবস্থা দেখা যায়। যা নিয়ে নভেম্বরের ১ তারিখে জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি নিলস মেলজার একটি রিপোর্ট জমা দেন।

নিলস মেলজার তার রিপোর্টে জানান, স্বেচ্ছাচারিতা ও অত্যাচারে প্রাণ যেতে পারে অ্যাসাঞ্জের।

এ বিষয়ে চিকিৎসকরা বলেন, চিকিৎসক হিসেবে আমরা এ চিঠি লিখেছি। জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য অবস্থা খুবই গুরুতর।

তারা আরও বলেন, তার শারীরিক এবং মানসিক উভয় অবস্থার জন্য তাকে জরুরি ভিত্তিতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে নেওয়া প্রয়োজন। তাকে বাঁচানোর জন্য আমাদের কাছে খুব অল্প সময় রয়েছে।

খোলা চিঠি প্রদানকারী চিকিৎসকরা যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, সুইডেন, ইতালি, জার্মানি, শ্রীলঙ্কা ও পোল্যান্ডের নাগরিক।

এর আগে বিভিন্ন গোপন কূটনৈতিক নথি ফাঁস করেছেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। এর মধ্যে ইরাক ও আফগানিস্তানে আমেরিকার হামলা অন্যতম। আর এসব গোপন নথির কারণে বিপদে পড়ে ওয়াশিংটন। এছাড়াও অনেক গোপন নথি ফাঁস করে বিপদে ফেলছে অনেক প্রভাবশালী দেশকে।

তার বিরুদ্ধে দুই নারী ধর্ষণের অভিযোগ আনলে ব্রিটিশ পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে । এরপর থেকে ব্রিটিশ কারাগারে রয়েছেন তিনি। 

আপনার মতামত লিখুন :