অর্ধনগ্ন হয়ে মাদ্রিদের রাস্তায় নারীবাদীদের বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: রয়টার্স

ছবি: রয়টার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

৪০ বছর স্পেনকে শাসন করে গেছেন স্বৈরশাসক ফ্রান্সিসকো ফ্রাঙ্কো। স্পেনের নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ১৯৩৯ সালে ক্ষমতায় আসেন তিনি। ৪৪ বছর আগে ১৯৭৫ সালে তার মৃত্যু হলেও এখনো তার সমর্থকেরা তাকে আধুনিক স্পেনের সর্বাপেক্ষা স্বতন্ত্র মুখপাত্র হিসেবে মনে করে। বিপরীতে তার বিরুদ্ধে এখনো বিক্ষোভ করে অনেকে।

২০ নভেম্বর ছিল তার মৃত্যুবার্ষিকী। তাকে শ্রদ্ধা জানাতে তার অনুসারীরা সপ্তাহব্যাপী আয়োজন করে থাকে। এর প্রেক্ষিতে রোববার (২৪ নভেম্বর) তাকে স্মরণ করে মিছিল বের করে তার অনুসারীরা। অন্যদিকে তার বিরুদ্ধে অর্ধনগ্ন হয়ে মাদ্রিদের রাস্তায় বিক্ষোভ করল দেশটির নারীবাদীরা। তাদের পিঠে ও বুকে লেখা রয়েছে 'ফ্যাসিবাদের জন্য কেন সম্মান এবং কেন গৌরব'। নারীবাদী সংগঠন ফেমেনের উদ্যোগে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। মাদ্রিদের দে ওরিইয়েন্তে শপিং মলের নিকটে গেলে বিক্ষোভটিকে বাধা দেয় পুলিশ। এরপর খুব দ্রুত তাদের সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়।

স্পেনে অর্ধনগ্ন হয়ে বিক্ষোভ
স্বৈরশাসক ফ্রান্সিসকোর বিরুদ্ধে অর্ধনগ্ন হয়ে বিক্ষোভ করেছে দেশটির নারীবাদীরা, ছবি: সংগৃহীত

এ বিষয়ে ফ্যাসিবাদী ফ্যালঞ্জ পার্টির নেতা যিশু মুউজ বলেন, 'আমরা ফ্রাঙ্কোর অপমানের বিরুদ্ধে মিছিল করছি। তার বিরুদ্ধে ভুয়া অভিযোগ দিয়ে তাকে স্বৈরশাসক তৈরি করা হয়েছে। এখন তারা তার সমাধির অবমাননা করছে।'

ফ্রাঙ্কো ১৯৩৯ থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত স্পেন শাসন করেন। তার জাতীয়তাবাদী উত্তরাধিকার নীতি এখনো স্পেন এবং এর রাজনৈতিক দলগুলোকে বিভক্ত করে রেখেছে। বিশেষ করে কাতালানদের এক ঘরে করে রেখেছিল তার সরকার। যা এখনো প্রতিফলিত হয়ে আসছে।

ফ্রাঙ্কোর শাসনামলে তার কাজে অমত পোষণ করায় প্রায় ১০ হাজার লোককে হত্যা ও কারাগারে প্রেরণ করা হয়। আর তার শাসনামলে হওয়া গৃহযুদ্ধে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ মারা যায়। যার মধ্যে যোদ্ধা ও বেসামরিক নাগরিক অন্তর্ভুক্ত।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর