নাগরিকত্ব আইনবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল দিল্লি



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
দিল্লিতে এখনও বিক্ষোভ চলমান/ছবি: সংগৃহীত

দিল্লিতে এখনও বিক্ষোভ চলমান/ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দিল্লিতে নাগরিকত্ব আইন ও জামিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের নির্যাতনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। বিক্ষোভের জেরে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে দিল্লির বিভিন্ন এলাকা।

মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে পূর্ব দিল্লিতে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্যসহ আহত হয়েছেন অনেকে। বিকেলে জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আশপাশেও বিক্ষোভ শুরু হয়।

স্থানীয় সময় দুপুর ১২টার দিকে পূর্ব দিল্লির সেলামপুরে বিক্ষোভ বের করেন স্থানীয়রা। ২ হাজারেরও বেশি বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নামেন। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ শুরু হলেও পরে তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

এনডিটিভি জানিয়েছে, সেলামপুরে বহুসংখ্যক বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় দিল্লির দাঙ্গা পুলিশ।

সংঘর্ষের সময়ে বহু সংখ্যক বাস, প্রাইভেট কারসহ বিভিন্ন যানবাহনে ভাঙচুর চলে। রাস্তায় জমা হয় বিক্ষোভকারীদের ছোড়া পাথর আর পুলিশের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের সেল। কাঁদানে গ্যাসের ধোঁয়ায় ছেয়ে যায় ওই এলাকা।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বিক্ষোভের সময় একটি স্কুল বাস ও পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয়া হয়েছে।

দিল্লি পুলিশ দাবি করেছে, বিক্ষোভকারীরা সড়ক অবরোধ, যানবাহন পুড়িয়ে সহিংসতার সৃষ্টি করছে। শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ না করে তারা উগ্র হয়ে উঠেছে।

এরইমধ্যে বিক্ষোভের কারণে দিল্লির সাতটি মেট্রো স্টেশনে বন্ধ ঘোষণা করেছে দিল্লি কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, জামিয়ার শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ইস্যু নিয়ে পুলিশ ও সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের একটি আবেদন নাকচ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ভারতের সর্বোচ্চ আদালত জানিয়েছে, আগে রাস্তায় সহিংসতা বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ওই আবেদন গ্রহণ করে সময় নষ্ট করতে চায় না বলে জানায় সর্বোচ্চ আদালত। আদালত বিক্ষোভকারীদের হাইকোর্টের কাছে তাদের আবেদন পেশ করার কথা বলেন।