দক্ষিণ কোরিয়ায় সঙ্গরোধ অমান্যকারীদের হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সঙ্গরোধ (হোম কোয়ারেন্টাইন) না মানলে বিদেশিদের দেশ থেকে বের করে দেওয়া হবে এবং দেশি নাগরিকদের জেলে পাঠানো হবে। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

বেশি মাত্রায় করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া দেশগুলো থেকে দক্ষিণ কোরিয়ায় আসা পর্যটকদের দুই সপ্তাহ বাধ্যতামূলক সঙ্গরোধে থাকতে বলা হয়। কিন্তু দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ১৩ থেকে ২৪ মার্চের মধ্যে কমপক্ষে ১১ জন সঙ্গরোধের নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। তবে তিনি তাদের জাতীয়তা সম্পর্কে কিছু বলেননি। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনস্বাস্থ্য নীতিনির্ধারণের মহাপরিচালক ইয়ুন তায়-হো বলেন, যারা যৌক্তিক কারণ ছাড়া সেলফ আইসোলেশন থেকে বেরিয়ে আসবে তাদের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করা হবে।

বিদেশি নাগরিকদের জোর করে দেশে ফেরত পাঠানো হবে এবং কোরিয়ান নাগরিকদের জরিমানার জন্য পুলিশকে জানানো হবে এবং ঠিকভাবে ১৪ দিনের সঙ্গরোধ মানলে যে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল সেটিও আর পাবে না।

নিয়ম ভঙ্গ করা কোরিয়ানদের এক বছর পর্যন্ত জেল দেওয়া হবে এবং ১০ মিলিয়ন ইয়োন (৮ হাজার ১০০ ডলার) জরিমানা করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন ১০৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে যার মধ্যে ৩০ জন বিদেশি। কোরিয়া সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (কেসিডিসি) জানিয়েছে, এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ২৪১ এ পৌঁছেছে এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে মোট ১৪২। এর আগে মৃতের সংখ্যা ছিল ১২৬।

কেসিডিসি থেকে বিবিসিকে জানানো হয়, গত দুই সপ্তাহে বিদেশ থেকে দক্ষিণ কোরিয়ায় আসা সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা পাঁচ গুণেরও বেশি বেড়ে ২৮৪ হয়েছে।

দীর্ঘমেয়াদি ভিসায় ইউরোপ থেকে আসা প্রত্যেকের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হচ্ছে এবং দুই সপ্তাহ সঙ্গরোধে রাখা হচ্ছে। শুক্রবার (২৭ মার্চ) থেকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা সকলকেও সঙ্গরোধে রাখা হবে এবং যাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ রয়েছে তাদের পরীক্ষা করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :