লকডাউন শিথিল করল ইতালি, সুস্থ ৮২ হাজার ৮৭৯

ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইউরোপের অন্যতম প্রাকৃতিক সুন্দরের দেশ ইতালি। মহামারি করোনার তাণ্ডবে এখন বিপর্যস্ত দেশটি।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনা প্রাদুর্ভাব শুরুর পর এখন পর্যন্ত ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ২৯ হাজার। আর আক্রান্ত ২ লাখ ১১ হাজার ৯৩৮ জন।

ইতালির সিভিল প্রোটেকশন এজেন্সির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সোমবার মৃতের তালিকায় যুক্ত হয়েছেন ১৯৫ জন ও সংক্রমিত হয়েছেন ১ হাজার ২২১ জন।

দেশটিতে গত একদিনেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২২৫ জন করোনা রোগী। এ নিয়ে সুস্থ ৮২ হাজার ৮৭৯ জন।

এদিকে ইতালিতে করোনায় সংক্রমণের হার কমে সুস্থতা বাড়তে থাকায় সোমবার (৪ মে) থেকে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। দীর্ঘ দুই মাস পর বাইরে যাওয়ার অনুমতি পেল দেশটির ৬ কোটি মানুষ।

লকডাউন শিথিলের প্রথম দিনে কাজে ফিরেছে দেশটির প্রায় ৪০ লাখ মানুষ। খুলেছে অফিস আদালত, উৎপাদন শিল্প, নির্মাণ খাত ও পাইকারি দোকানপাট। রেস্টুরেন্ট, স্টেশনারি, বইয়ের দোকান, বাচ্চাদের কাপড়ের দোকান, কম্পিউটার ও কাগজপত্র তৈরির কাজ শুরু করার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

তবে আগামী ১৮ মে থেকে বাণিজ্যিক কিছু অংশ, প্রদর্শনী, জাদুঘর, প্রশিক্ষণ টিম, ক্রীড়া ক্ষেত্র এবং গ্রন্থাগার খোলার ঘোষণা করা হয়েছে। ইতালিতে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো আগামী সেপ্টেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে খোলার কথা রয়েছে।

লকডাউন শিথিল করা হলেও করোনা ভাইরাসের প্রকোপ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত সবাইকে পাবলিক পরিবহনসহ বাইরে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জোসেপ কোঁতে বলেন, লকডাউন পুরোপুরি তুলে নেয়ার বিষয়টি নির্ভর করবে সংক্রমণের গতিপ্রকৃতির উপর।

বিধি-নিষেধ শিথিল করাকে ‘করোনা ভাইরাস থেকে পুরোপুরি মুক্ত’ না ভেবে সব নাগরিককে সতর্ক ও সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।