রাশিয়ায় সংবিধান সংশোধনে ভোট ১ জুলাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী ১ জুলাই রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সংবিধান সংশোধনের ভোট। সোমবার (১ জুন) প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন একথা জানিয়েছেন। এই ভোট পুতিনের শাসনের মেয়াদ ২০৩৬ সাল পর্যন্ত বাড়িয়ে দিতে পারে।

২২ এপ্রিল ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাস মহামারির কারণে পুতিন তা পিছিয়ে দেন। তিনি জানান, জনগণের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা তার কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি অনেকটা স্থিতিশীল এবং মস্কোতে সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। ফলে রাজধানীতে কিছু নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা যাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সংবিধানের যে বিষয়টি পরিবর্তনের জন্য রাশিয়ানরা ভোট দিতে যাচ্ছে তা ইতিমধ্যে সংসদ এবং রাশিয়ার সাংবিধানিক আদালতে গৃহীত হয়েছে। এই পরিবর্তনের ফলে পুননির্বাচিত হলে পুতিন ২০৩৬ সাল পর্যন্ত পর পর দুই বার ছয় বছর করে মোট ১২ বছর ক্ষমতায় থাকতে পারবেন।

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত সরকারি আলোচনায় পুতিন বলেন, আমি আশা করছি দেশের জনগণ সক্রিয়ভাবে সংবিধান সংশোধনীর ভোটে অংশগ্রহণ করবে। সংবিধানের বর্তমান আইন অনুযায়ী ২০২৪ সালে পুতিনের মেয়াদ শেষ হবে। এরপর তিনি আর ক্ষমতায় আসতে পারবেন না।

সমালোচকরা এই ভোটকে সাংবিধানিক অভ্যুত্থান হিসেবে প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং কারচুপির আশঙ্কা করছেন। তারা ভোটারদের এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করতে বা ভোট না দেওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

লিউবভ সবোল নামের একজন সমালোচক বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে ১ জুলাই খুব তাড়াতাড়ি হয়ে যায়।

তবে ক্রেমলিনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভোটারদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে তারা সব রকমের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আপনার মতামত লিখুন :