ঈদুল আজহার জামাতও হচ্ছে না শোলাকিয়ায়



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
শোলাকিয়া ঈদগাহে ঈদের জামাতের দৃশ্য, ছবি: সংগৃহীত

শোলাকিয়া ঈদগাহে ঈদের জামাতের দৃশ্য, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

তীব্র কুয়াশা ঢাকা শীতকাল অথবা বৃষ্টিস্নাত বর্ষাকাল, আবহাওয়া যতই বৈরি হোক না কেন, ঈদের জামাতে অংশগ্রহণের জন্য আগের রাত থেকেই খোলা আকাশের নিচে দলবেঁধে মুসল্লিদের নামাজের কাতারে দাঁড়ানোর অতি পরিচিত দৃশ্য এবারের ঈদেও দেখা যাবে না।

ঈদুল ফিতরের জামাতের পর ঈদুল আজহার জামাত হবে না শোলাকিয়া ঈদগাহে। করোনার কারণে মানুষের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও এর আগেই ধর্ম মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ঈদুল আজহার নামাজের কোনো জামাত খোলা মাঠ কিংবা ঈদগাহে আয়োজন করা যাবে না।

সোমবার (২৭ জুলাই) কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেট ভবনে ১৯৩তম ঈদুল আজহার প্রস্তুতি সভা শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন ঈদ উদযাপন প্রস্তুতি কমিটির সভাপতি কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী।

এর আগে করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে এর আগে এ ঐতিহাসিক ঈদগাহ ময়দানের ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠানও বন্ধ ঘোষণা করা জেলা করোনা প্রতিরোধ এবং ঈদ ঈৎসব উদযাপন কমিটি। মূলত প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সোশ্যাল ট্রান্সমিশন রুখতে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৃষ্টি উপেক্ষা করেও মানুষ শোলাকিয়ার জামাতে শরিক হতেন, ছবি: সংগৃহীত

কিশোরগঞ্জ শহরের উপকণ্ঠে নরসুন্দা নদীর তীরে দুইশত বছরের পুরনো ও ঐতিহ্যবাহী এ ঈদগাহ ময়দানে প্রতি বছর দেশ বিদেশের তিন লাখেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ঈদের জামাতে নামাজ আদায় করেন। এই ঈদগাহ ময়দানটি দেশ এমনকি উপ-মহাদেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামাতের খ্যাতি অর্জন করেছে।

২০১৬ সালের ৭ জুলাই ভয়াবহ জঙ্গি হামলার ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য, এক প্রতিবেশী নারী এবং এক জঙ্গিসহ চারজন নিহত ও পুলিশসহ ১৬ মুসল্লি হতাহতের ঘটনা ঘটে। তারপরও ভাটা পড়েনি এ ঐতিহাসিক ঈদগাহ ময়দানের ঈদের জামাতে মুসল্লিদের সমাগমে।

শোলাকিয়া ঈদগাহে ইমাম হিসেবে রয়েছেন মাওলানা ফরিদউদ্দিন মাসউদ।