একই বৃন্তে দুটি কুসুমের মতো শাহরুখ ও সৌরভ: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, কলকাতা
কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অতিথিরা

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অতিথিরা

  • Font increase
  • Font Decrease

কলকাতা জুড়ে বড় বড় হোর্ডিং তাতে লেখা, কলকাতার সব রাস্তাই চলচ্চিত্র উৎসবমুখী। এ বছর ‘কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’র ২৫ বছর। ফলে রজতজয়ন্তী বর্ষে বিশ্ব সিনেমাকে স্বাগত জানাতে শুক্রবার (৮ নভেম্বর) প্রস্তুত ছিল কলকাতাবাসী। এদিন নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে চলচ্চিত্র উৎসবের শুভ সূচনা হয়। কে নেই সেখানে এক কথায় বলা যায় চাঁদের হাট। গোটা স্টেডিয়ামে তখন তারকা সমাবেশ।

একদিকে যখন সঞ্চালনা করছে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও যীশু সেনগুপ্ত তখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে প্রদীপ প্রজ্বলন করে উৎসবের উদ্বোধন করলেন পশ্চিমবাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর তথা বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন রাখী গুলজার, মহেশ ভাট এবং কুমার সাহানি। তখন মঞ্চে আলো করে বসে আছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। অসুস্থতার কারণে চিকিৎসকদের অনুরোধে আসতে পারেননি পশ্চিমবাংলা জামাই অমিতাভ বচ্চন। আর সে কারণেই আসেনি জয়া বচ্চন।

এবার কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বিদেশিদের মধ্যে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জার্মান পরিচালক ভোলকার স্ক্লনডর্ফ, আমেরিকার অভিনেত্রী অ্যান্ডি ম্যাকডাওয়েল এবং স্লোভাক পরিচালক ডুসান হানাক। উপস্থিত ছিলেন সম্পূর্ণ টলিউড। তবে উৎসবের হাত ধরে রাখী গুলজার দীর্ঘদিন পর এ শহরে পা রাখলেন।

অনুষ্ঠানে শাহরুখ বলেন, ‘কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুধু বাংলার নয়, গোটা ভারতের যত চলচ্চিত্র উৎসব হয় তার থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। কারণ কলকাতার যে দৃষ্টিকোণ দিয়ে সিনেমা মেক হয় তা গোটা ভারতে হয় না। এক কথায় বলা যেতে পারে বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্য।

চলচ্চিত্র উৎসবে এসেছেন, অথচ ছবির সংলাপ না বলে চলে যাবেন! তা কেমন করে হয়? নিজের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দিয়ে শেষ করলেন ‘রইস’ সিনেমার আদলে সংলাপ দিয়ে বলেন, ‘আম্মি জান কেহতি থি, আম্মিজান কেহতি কোইভি ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ছোটা ইয়া বড়া নেহি হোতা। লেকিন কিফ সে সুন্দর কোই দুসরা ফেস্টিভ্যাল নেহি হোতা।’ অর্থাৎ যার বাংলা করলে হয়, আম্মিজান বলতেন, আম্মিজান বলতেন, কোনও ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ছোট বা বড় হয় না। কিন্তু কলকাতা ফিল্মফেস্টিভ্যালের (কিফ) মতো কেউ নেই।

এরপর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শাহরুখ যে তার ভাই, সেটা আবারও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাড়িয়ে ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে বলেন, ‘শাহরুখ নো ছুট্টি, তাহলে কাট্টি। তোমাকে প্রতিবারই আসতেই হবে। এরপর মুখ্যমন্ত্রী শাহরুখের ভূয়সী প্রশংসা। বললেন, ‘ও আমাদের খুব প্রিয়। আজ সারা পৃথিবীতে নাম করেছে। ও খুব সিম্পল, বেস্ট বয়, অহংকার নেই, ঔদ্ধত্য নেই, মানুষকে ভালবাসে। মানবিকতাকে ভালবাসে।’

পাশাপাশি মমতা বলেন, বিসিসিআইয়ের দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম কোনো মঞ্চে এলেন সৌরভ। তার পর মন্তব্য করেন ‘একই বৃন্তে দুটি কুসুমের মতো একদিকে শাহরুখ। একদিকে সৌরভ। আমার ভীষণ ভালো লাগছে।’

আপনার মতামত লিখুন :