মমতার রাজ্যে লকডাউন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত, ভারতে সময়ের অপেক্ষা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কলকাতা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতে ২১ দিনের চলমান লকডাউন শেষ হবে ১৪ এপ্রিল। তবে তা বাড়ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা শুধু সময়ের অপেক্ষা। লকডাউন অন্তত ২ সপ্তাহ বাড়ানোর পক্ষেই রায় দিয়েছেন ১০ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা।

প্রধনমন্ত্রীর সঙ্গে শনিবার (১১ এপ্রিল) লকডাউন নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। প্রায় সকলেই লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে জোর দিয়েছেন। তাদের অভিমত অন্তত ২ সপ্তাহ বাড়ানো হোক লকডাউন।

তবে গোটা বিষয়টি এখন প্রধানমন্ত্রীর বিচারাধীন। সব ঠিক থাকলে রোববার (১২ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রী লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা করতে পারেন।

এবিষয়ে দিল্লির পাশাপাশি, পাঞ্জাব, পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, বিহার, ছত্তিশগড়, রাজস্থান, উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীরাও লকডাউনের পক্ষেই রায় দেন। আর তা দেশজুড়েই করা উচিত। তা না করলে লকডাউনের সুফল পাওয়া যাবে না। আর যদি লকডাউন শিথিল করা হয় তাহলে রেলসহ অন্যান্য যানবাহন বন্ধ রাখা উচিত ভারতে এমনই তথ্য উঠে আসে বৈঠকে।

তবে এদিন প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকের পর মোদির ঘোষণার আগেই রাজ্যে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ান মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি ঘোষণা করেন আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন বাড়ানো হল। রাজ্যে দ্বিতীয় দফার লকডাউনের পাশাপাশি একগুচ্ছ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন মমতা।

এর মধ্যে ১০ জুন পর্যন্ত সমস্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখতে হবে। কৃষকদের শস্য কেনার জন্য নতুন অ্যাপ আনছে মমতা সরকার। এবার থেকে লকডাউনের মধ্যেই বেকারি চালু করা হচ্ছে নিয়ম মেনে। এছাড়া যৌনপল্লিতে এবং বৃহন্নলাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করবে পুলিশ। এছাড়া আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেন এদিন।

এদিকে, ভারতে আক্রান্ত বেড়ে ৭ হাজার ৫২৯ জন। মৃত্যু ২৪২ জন। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল ৬। রাজ্যে করোনা আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ৯৫। মৃত ৫, সুস্থ হয়ে ১৩ জন বাড়ি ফিরেছেন। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ তথ্য জানান ।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এখন সংখ্যাটা বাড়বে, কিন্তু আতঙ্কিত হবেন না’।

আপনার মতামত লিখুন :