সস্ত্রীক আগাম জামিন পেলেন পিরোজপুরের পৌর মেয়র



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম ঢাকা
মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নীলা রহমানকে

মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নীলা রহমানকে

  • Font increase
  • Font Decrease

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় পিরোজপুর পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নীলা রহমানকে পাঁচ সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। হাবিবুর রহমান মালেককে দুই মামলায় এবং তার স্ত্রী নীলা রহমানকে এক মামলায় জামিন দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ রবিবার হাবিবুর রহমান দম্পত্তির জামিন মঞ্জুর করে আদেশ দেন।

জামিন আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শেখ আওসাফুর রহমান বুলু। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এ কে এম ফজলুল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।


অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পিরোজপুর-১ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য একেএম এ আউয়ালের ভাই পিরোজপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নীলা রহমানকে আসামি করে গত ১৮ মার্চ বরিশালে দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলা করা হয়।

এদিকে জালিয়াতির মাধ্যমে পৌরসভায় জনবল নিয়োগ দেওয়ার অভিযোগে মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব তরফদার সোহেল রহমান, পৌরসভার কাউন্সিলর আবদুস সালাম বাতেন, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হানিফ, পৌরসভার সচিব মাসুদ আলম এবং নিয়োগ পাওয়া ব্যক্তিসহ মোট ২২ জনকে আসামি করে বিরুদ্ধে পৃথক একটি মামলা করা হয়। দুই মামলায় মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক এবং এক মামলায় তার স্ত্রী হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন।

উল্লেখ্য পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মালেকের বড় ভাই পিরোজপুর-১( পিরোজপুর সদর-নাজিরপুর-স্বরূপকাঠি) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য একেএমএ আউয়ালও সস্ত্রীক দুর্নীতি মামলার আসামী। এ দম্পতিও জামিনে রয়েছেন।