হাতিয়ায় ইউপি সদস্য প্রার্থীকে কুপিয়ে হত্যা, আসামি ৫৫



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
জোবায়ের হোসেন

জোবায়ের হোসেন

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালী উপজেলার হাতিয়া সোনাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী জোবায়ের হোসেনকে কুপিয়ে (৪৫) হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় ৫৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করা হয়েছে।

রবিবার (৯ মে) দুপুরে নিহত জোবায়ের হোসেনের ছেলে মেহেদী হাসান জীবন বাদি হয়ে হাতিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন।  শুক্রবার (৭ মে ) সকাল ১১টায় তাকে হত্যা করা হয়।

মামলায় সোনাদিয়া ইউনিয়নেন ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল বাতেনকে প্রধান ও ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মালেশিয়াকে ২নং আসামি করে ৫৫ জনের নাম উল্লেখ করে এ মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়া অজ্ঞাত ৩০-৪০ জনকে আসামি করা হয়। হাতিয়া থানা মামলা নং ১০। এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে নিহত জোবায়েরকে শনিবার (৮ মে) বিকালে সোনাদিয়া ইউনিয়নের মধ্য চরচেঙ্গা নিজ গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাপন করা হয়।

নিহতের ছেলে জীবন অভিযোগ করে বলেন, ঘটনার দিন সকালে তার বাবা চরচেঙ্গা বাজারে তাদের নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবস্থান করছিলেন। এসময় ইউপি সদস্য বাতেনের নেতৃত্বে একদল স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী এসে তার বাবাকে আক্রমণ করে। প্রথমে গুলি করে পরে কুপিয়ে পায়ের রগ কেটে দিয়ে চলে যায়। সন্ত্রাসীরা সবাই বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামের সমর্থক। এসময় সন্ত্রাসীদের হামলায় সে (জীবন) এবং আরও তিনজন আহত হয় বলে জানান জীবন।

জীবন আরও জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তার পিতা জোবায়ের মেম্বার প্রার্থী হলেও সে ছিল আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী মেহেদী হাসানের একনিষ্ঠ সমর্থক। বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নৌকার মনোনয়ন না পেয়ে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে মাঠ দখলের চেষ্টা অব্যাহত রাখে । এ নিয়ে চেয়ারম্যানের লোকজনের সাথে নির্বাচনের প্রথম থেকে তার বাবার বিরোধ চলছিলো।

হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল খায়ের বলেন, এই মামলায় এখন পর্যন্ত ১০জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে মামলার প্রধান আসামিসহ অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।