ডিজিটাল আইনের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন বেরোবি শিক্ষক মুনিরা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) বাংলা বিভাগের প্রভাষক সিরাজাম মুনিরা। সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যু নিয়ে ফেসবুকে ব্যঙ্গাত্মক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এই মামলা হয়েছিল।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট রুহুল আমিন তালুকদার।

তিনি বলেন, সোমবার মামলার দিন ধার্য ছিল। বিবাদীর বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় রংপুরে নবগঠিত সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুল মজিদ বেরোবির শিক্ষক মুনিরাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন।

গত বছরের ১৩ জুন লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম মারা যান। তার মৃত্যু নিয়ে শিক্ষক মুনিরা ফেসবুকে আপত্তিকর কথা লিখে পোস্ট দেন। এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় ওঠে। মুনিরাকে আক্রমণ করে মন্তব্য করতে থাকেন ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। তার শাস্তিও দাবি করা হয়। একপর্যায়ে পোস্টটি মুছে দেন তিনি। কিন্তু পোস্টের স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে।

চাপের মুখে ওই শিক্ষক আগের পোস্টের জন্য ক্ষমা চেয়ে আরেকটি পোস্টও দেন। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। এ ঘটনায় ১৩ জুন রাতেই তাজহাট থানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে মামলা করেন রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তাফা কামাল। ওই দিন রাতেই তাকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ১৭ জুন রাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তাকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি জানায়।

এদিকে কারাগারে আটক থাকলেও ওই বছরের ৫ আগস্ট হাইকোর্ট থেকে জামিন পান তিনি।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইজার আলী বলেন, গত মার্চ মাসে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছিল। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তির মতামত না পাওয়ায় তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তাফা কামাল জানান, বিষয়টি লোক মুখে শুনেছি, এখনো কাগজপত্র পাইনি। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।