অনিয়মের অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টের হলফনামা শাখায় রদবদল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

অনিয়মের অভিযোগের একদিন পরেই সুপ্রিম কোর্টের এফিডেভিট (হলফনামা) শাখায় পরিবর্তন এনেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) হলফনামা শাখার সকল কর্মকর্তাকে-কর্মচারীকে বদলি করা হয়েছে।

আগের দিন আপিল বিভাগের শুনানিতে প্রধান বিচারপতির ক্ষোভ প্রকাশের একদিন পরেই এ আদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) আপিল বিভাগে একটি মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টের হলফনামা শাখায় সিসি (ক্লোজ সার্কিট) ক্যামেরা বসানোর পরও অনিয়ম রুখতে পারছি না বলে মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি।

আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় একটি মামলা ৩ নম্বর ক্রমিকে থাকার কথা থাকলেও তা ৮৯ নম্বর ক্রমিকে দেখা যায়। বিষয়টি আদালতের নজরে আনেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

তখন প্রধান বিচারপতি ক্ষুব্ধ হয়ে বলেন, ‘কি আর করব বলেন? সিসি ক্যামেরা বসিয়েও অনিয়ম রুখতে পারছি না।’

ওইদিন প্রধান বিচারপতি তাৎক্ষণিক এক আদেশে ডেপুটি রেজিস্ট্রার মেহেদী হাসানকে আপিল বিভাগে তলব করেন। তবে মামলার ক্রমিক ঠিক করা নিয়ে মেহেদী হাসানের ব্যাখায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন প্রধান বিচারপতি নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ। তাকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করে দেন। পরে ডেপুটি রেজিস্ট্রারকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়।

আপনার মতামত লিখুন :