আদালতে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের হট্টগোল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি এগিয়ে আনার দাবিতে বিএনপিপন্থী শতাধিক আইনজীবী আপিল বিভাগে অবস্থান করছেন।

আইনজীবীদের নজীরবিহীন চিৎকার চেচামেচিতে এজলাস ছেড়ে গেছেন বিচারকরা।

আপিল বিভাগ মেডিকেল রিপোর্ট দাখিলের জন‌্য এবং পরবর্তী শুনানির জন‌্য আগামী ১২ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন। এসময় বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা এ আদেশ মানি না বলে উচ্চস্বরে কথা বলতে থাকেন। তারা ‘শেইম’ ‘শেইম’ বলে হট্টগোল শুরু করলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরাও তাদের বক্তব‌্যের বিরোধীতা করেন। শুরু হয় দু’পক্ষের বাকবিতণ্ডা।

এক পর্যায়ে বিচারপতিরা কোনো লিখিত আদেশ না দিয়ে এজলাস কক্ষ ত‌্যাগ করেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আপিল বিভাগের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তবে দুই পক্ষের আইনজীবীরাই এজলাস কক্ষে অবস্থান করছেন।

বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে সাবেক স্পীকার ব্যারিস্টার জমিরউদ্দীন সরকার, সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ আহমেদ, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, এ জে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন, নিতাই রায় চৌধুরী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, অ্যাডভোকট মনির হোসেন, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, জামিল আক্তার এলাহী, ব্যারিস্টার মীর হেলাল উদ্দিন, তাহেরুল ইসলাম তৌহিদসহ আইনজীবীরা আপিল বিভাগের এজলাসে অবস্থান করছেন।

চিকিৎসার প্রতিবেদন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে না আসায় শুনানি পিছিয়ে দেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ছয় বিচারপতির বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন ও খন্দকার মাহবুব হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

আপনার মতামত লিখুন :