ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণে মজনুর দোষ স্বীকার

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ধর্ষক মজনু, ছবি: বার্তা২৪.কম

ধর্ষক মজনু, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ধর্ষণের অভিযোগ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন গ্রেফতারকৃত মজনু।

ডিবি পুলিশের হেফাজতে থাকাকালীন মজনু দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিতে সম্মত হলে বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) তাকে আদালতে হাজির করা হয়।

আরও পড়ুন: ভিক্ষুক-প্রতিবন্ধী নারীদেরও ছাড়েনি মজনু

মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেনের আদালত মজনুর স্বীকারোক্তি রেকর্ড করেন। জবানবন্দি শেষে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ৯ জানুয়ারি মজনুকে সাতদিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছিলেন আদালত।

আরও পড়ুন: ‘পৃথিবীর সমস্ত চেহারা ভুললেও, ধর্ষকেরটা ভুলব না’

উল্লেখ্য, গত (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা বাস স্ট্যান্ড নেমে জোয়ার শাহারা রেলগেট যাচ্ছিলেন। এ সময় এক ব্যক্তি তার মুখ চেপে ধরে পাশের নির্জন স্থানে নিয়ে যান। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করে।

পরে রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি বিষয়টি বুঝতে পারেন। পরে সেখান থেকে অটোরিকশায় করে বাসায় ফেরার পর রাত ১২টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন: ভিকটিমের ব্যাগ ছিল ধর্ষকের কাছে

পরদিন ৬ জানুয়ারি ভিকটিমের বাবা ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন। ৭ জানুয়ারি রাতে অভিযুক্ত মজনুকে আটক করে র‌্যাব। ভিকটিম নিশ্চিত করার পরই তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর