রাষ্ট্রপতির কাছে সুইস দূতের পরিচয় পেশ



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
বাংলাদেশে নবনিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ

বাংলাদেশে নবনিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে নবনিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শিউআখ রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের কাছে তার পরিচয়পত্র পেশ করেন। বুধবার (১২ই আগস্ট) বিকেলে বঙ্গভবনে তিনি এই পরিচয়পত্র পেশ করেন।

রাষ্ট্রদূত শিউআখ এক বার্তায় বলেন, গত ৪৮ বছর ধরে দু’দেশ বহু ক্ষেত্রে চমৎকার সম্পর্ক ধরে রেখেছে এবং কঠিন সময়েও একে অপরের পাশে দাঁড়িয়েছে। দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদার ও প্রসারিত করার নিমিত্তে তিনি কাজ করে যাবেন।

রাষ্ট্রদূত হিসেবে বাংলাদেশে যোগদানের আগে নাথালি শিউআখ সুইস এজেন্সি ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কোঅপারেশনের মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকা বিষয়ক মানবিক সহায়তা বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০০৫ সালে সুইস পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগ দেন। ইতিপূর্বে তিনি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সুইস মিশনে রাজনৈতিক সমন্বয়কের পদসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সংহতি, পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে সুইজারল্যান্ড ও বাংলাদেশের মধ্যকার দীর্ঘস্থায়ী সুসম্পর্ক গড়ে উঠেছে। মানবিক সহায়তা এবং উন্নয়ন সহযোগিতা প্রথমদিকে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সূচনা করে যা আজও প্রাধান্য পেয়ে আসছে। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে অর্থনৈতিক সম্পর্কের পাশাপাশি বহুপাক্ষিক সহযোগিতা সম্প্রসারণের উপরও দুদেশ মনোনিবেশ করছে। কোভিড-১৯ মোকাবেলায় ও এই অভূতপূর্ব সংকট থেকে উত্তরণে সুইজারল্যান্ড বাংলাদেশের পাশে রয়েছে এবং ইতিমধ্যে ৮ মিলিয়ন সুইস ফ্রাঙ্কের অধিক (৭০ কোটি টাকার সমপরিমাণ) সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয়, সুরক্ষা এবং সহায়তা প্রদানে সুইজারল্যান্ড বাংলাদেশ সরকার ও জনগণের সাথে অংশীদারিত্ব ও সংহতির ভিত্তিতে কাজ করে যাবে। গণতান্ত্রিক শাসন ও মানবাধিকারসহ অন্যান্য পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়েও গঠনমূলকভাবে সুইজারল্যান্ড বাংলাদেশের সাথে কাজ করে যাবে।