গণপরিবহন আগের বর্ধিত ভাড়ায় চলবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে আগের বর্ধিত ভাড়ায় বলবৎ থাকছে গণপরিবহনে। করোনার কারণে বেশ কিছু শর্তে বর্ধিত ভাড়ায় (৬০ শতাংশ) গণপরিবহন চালু করেছিল সরকার। 

বুধবার (১৯ আগস্ট) যানবাহনের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)- এর উপ-পরিচালক এনফোর্সমেন্ট মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক বার্তা২৪.কম-কে বিষয়টি জানিয়েছেন। 

এদিকে ,বর্ধিত ভাড়ার বিষয় নিয়ে বিকেলে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে গণপরিবহন মালিক-শ্রমিকদের সঙ্গে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) এক বৈঠক করেছে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুর রাজ্জাক বার্তা২৪.কম-কে বলেন, 'বাস-মালিকরা আমাদের একটা প্রস্তাব দিয়েছে তারা আগের মতোই যাত্রী বহন করতে চাই এবং বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার চাই। এই প্রস্তাবটি আমরা সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দিবো তারপর সিদ্ধান্ত জানা যাবে। নতুন কোনো সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত আগের বর্ধিত ভাড়াই বলবৎ থাকবে।

এদিকে কি প্রস্তাব দিয়েছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ বার্তা২৪.কম-কে বলেন, অন্যান্য গণপরিবহন সিএনজি, মাইক্রোবাস, হিউম্যান হলার সবাই তাদের সিট ক্যাপাসিটি অনুযায়ী যাত্রী নিচ্ছে। বাসের বেলায় শুধুমাত্র এই নিয়ম নেই।সুতরাং আমরা চাই বাসের সিট ক্যাপাসিটি অনুযায়ী যাত্রী নিতে এবং আগের ভাড়ায় যাত্রী নিতে। এই সংক্রান্ত আমরা একটা প্রস্তাব দিয়েছি বিআরটিএ-কে তারা এটি মন্ত্রণালয় পাঠাবে তারপর সিদ্ধান্ত হবে। সুতরাং তার আগ পর্যন্ত ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়ায় গণপরিবহন চলবে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মে থেকে সামাজিক দূরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

আপনার মতামত লিখুন :