সেন্টমার্টিনে ফিশিং ট্রলারের ধাক্কায় দুই যাত্রী নিহত



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কক্সবাজার
সেন্টমার্টিনে/ ছবিঃ সংগৃহীত

সেন্টমার্টিনে/ ছবিঃ সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে যাত্রীবাহী স্পিডবোট ও ফিশিং ট্রলারের মুখোমুখি সংর্ঘষে দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সুমাইয়া নামের এক শিশু নিখোঁজ রয়েছে এবং ৫ যাত্রী আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বেলা আড়াইটার দিকে টেকনাফ পৌরসভার কায়ুকখালীপাড়া বিজিবি চেকপোস্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এতে রশিদা বেগম (৬৫) নামের স্পিডবোটে থাকা এক যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তিনি সেন্টমার্টিন দ্বীপ ইউনিয়নের পশ্চিমপাড়ার বাটু মিয়ার স্ত্রী। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মেহেরুন নেছা নামের আরেকজন মারা যান।

আহত মামুন, মো: আমিন, জাহারো বেগম, সোহেল ও মমতাজ বেগমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তারা বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্পিডবোটে থাকা আহত যাত্রীরা জানান- টেকনাফ পৌরসভার কেকে ঘাট থেকে ৮ জন যাত্রী নিয়ে কাইছার নামে এক চালক সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। বিজিবি চেকপোস্ট পার হওয়ার পরই সামনে থাকা ফিশিং ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কায় যাত্রীসহ স্পিডবোট উল্টে যায়।

আহতদের মধ্যে ৬ যাত্রীকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে একজন মারা যান। বাকি ৫ জনের চিকিৎসা চলছে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিখোঁজ সুমাইয়া উদ্ধার হয়নি।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমদ।