হামলার এক মাস পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন ওয়াহিদা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ওয়াহিদা খানম

ওয়াহিদা খানম

  • Font increase
  • Font Decrease

দুর্বৃত্তের হামলার এক মাস পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম।

বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) ওয়াহিদা খানমের চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান এবং ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের নিউরো ট্রমা বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন এমনটি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “ওয়াহিদা খানমের শারীরিক অবস্থা এখন ভালো। তবে তার ডান হাত-পায়ের শক্তি শতভাগ ফিরে আসেনি। এজন্য তাকে পক্ষাঘাতগ্রস্থদের পুনর্বাসন কেন্দ্র বা সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইজ্‌ড (সিআরপি) রেফার করেছি। সেখানে তাকে ফিজিওথেরাপি দেওয়া হবে। আশা করি বাকি যেটুকু শক্তি ফিরে পেতে বাকি আছে সেটুকু ফিরে আসবে।”

ওয়াহিদা খানম মিরপুরের সিআরপিতে ফিজিওথেরাপি নেবেন বলে এই চিকিৎসক জানিয়েছেন।

মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন আরো বলেন, “ওয়াহিদার মাথার খুলির হাড্ডি ভেঙ্গে ব্রেনের ভিতরে ঢুকে গিয়েছিল। সেটি আমরা অপারেশন করে তুলে দিয়েছি। যার ফলে তার ব্রেইন ড্যামেজ হয়েছিল। ব্রেনের ডেমেজ আল্লাহর রহমতে রিকভারি হয়ে গেছে। সে কারণে তিনি এখন হাঁটতে পারছেন।”

এই চিকিৎসক বলেন, “আগামী দুই এক সপ্তাহের মধ্যে ফুল রিকভারি হয়ে যাবে। কোন ডিজেবিলিটি থাকবে না। আপনারা দেখেছেন স্ট্রেচারে করে তিনি ঢুকেছিলেন আজ হেঁটে হাসপাতাল ছেড়েছেন।”

ওয়াহিদার বাবার চিকিৎসার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকে একইসাথে তার বাবকেও ছুটি দেওয়া হয়েছে। তিনি প্রথমে যখন আসে চার হাত পা নাড়াতে পারতেন না এখন তিনি চার হাত পা নাড়াতে পারছেন। কিন্তু হাঁটার মতো অবস্থায় এখনো যাননি। যেটুকু রিকভারি হওয়ার অপারেশন ছাড়াই হবে। তাকেও সিআরপিতে পাঠানো হবে।