পটুয়াখালীতে সুন্দরবন কুরিয়ারের বিরুদ্ধে মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, পটুয়াখালী
সুন্দরবন কুরিয়ার

সুন্দরবন কুরিয়ার

  • Font increase
  • Font Decrease

সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম লিমিটেড পণ্য হারিয়ে ফেলায় জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন আইনজীবী মো. আল আমিন হাওলাদার ।

অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) সকাল ১০টায় জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কার্যালয়ে উভয় পক্ষের শুনানি গ্রহণ করবেন সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম।

আইনজীবী মো. আল আমিন হাওলাদার বলেন, গত ৯ জুলাই পটুয়াখালী সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে একটি হলুদ পলিব্যাগে একশত টাকা পরিশোধ করে একটি পণ্য ঢাকা ফার্মগেট শাখায় ইউনিক মোবাইল ঠিকানায় প্রেরণ করি। পণ্যটি যথা সময়ে না পাওয়ায় সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসে অভিযোগ করলে কর্তৃপক্ষ জানান পণ্যটি হারিয়ে গেছে। পরে কর্তৃপক্ষের নিকট একাধিকবার যোগাযোগ করলে তারা জানান পণ্যের সমপরিমাণ টাকা আমাকে ফেরত দেবে। পরবর্তীতে তারা সময়ক্ষেপণ করে দীর্ঘ দুই মাস পর কুরিয়ার সার্ভিসের হেড অফিস থেকে জানানো হয়, আমার নিকট রক্ষিত কুরিয়ারের রশিদ নিয়ে পটুয়াখালী শাখায় গেলে সমপরিমাণ টাকা পরিশোধ করবে। তারপর রশিদ নিয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর পটুয়াখালীর সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসে গেলে ম্যানেজার বলেন, তাকে টাকা পরিশোধের বিষয়ে হেড অফিস থেকে কিছু বলা হয়নি। হেড অফিস থেকে কিছু না বললে কোনো টাকা দেওয়া যাবে না।

তিনি আরও বলেন, ম্যানেজারকে হেড অফিস থেকে বলা তথ্য সংগ্রহ করলে বলেন, আপনি হেড অফিসে গিয়ে বোঝেন। এখানে কিছু হবে না।

এবিষয়ে পটুয়াখালীর সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের ম্যানেজারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি কল রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম বলেন, আইনজীবীর অভিযোগের ভিত্তিতে আগামীকাল শুনানি রয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।