চাঁদাবাজির অভিযোগে রাজশাহীতে ডিবির পরিদর্শক বরখাস্ত



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) আলোচিত পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল ইসলামকে চাঁদাবাজির অভিযোগে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) পুলিশ সদরের দফতরের এক আদেশে তাকে সিলেট রেঞ্জে সংযুক্ত করার নির্দেশ দেয়া হয়। রাত ৮টার দিকে আরএমপি’র মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) গোলাম রুহুল কুদ্দুস বার্তা২৪.কমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আরএমপি সূত্র জানিয়েছে, গত ১৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ বায়া পালপাড়া এলাকায় নওহাটা পৌরসভার একজন সহকারী প্রকৌশলীকে নারীসহ আটক করেন পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল ইসলাম। এরপর ওই প্রকৌশলীর কাছে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন তিনি। দেনদরবারের এক পর্যায়ে ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা নগদ এবং তিন লাখ টাকার চেক নেন। পরে ওই প্রকৌশলীকে ছেড়ে দেন পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল। বিষয়টি জানাজানি হলে এনিয়ে তদন্ত শুরু করে আরএমপি।

সূত্রটি আরো জানিয়েছে, আরএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার পর্যায়ের এক কর্মকর্তা পরিদর্শক খাইরুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে সত্যতা পান। তদন্ত রিপোর্ট পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হলে সোমবার খাইরুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশ আসে। একই সাথে তাকে আরএমপি ডিবি থেকে সিলেট রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়।

পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, ২০১৪ সালে রাজশাহী নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে দুই শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের অভিযোগে খাইরুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে মাদকসেবন, মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে সখ্যতা, মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়সহ পুলিশের শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগ রয়েছে।