‘নিরাপদ সড়ক দিবস আজ’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আজ নিরাপদ সড়ক দিবস।

আজ নিরাপদ সড়ক দিবস।

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস আজ (২২ অক্টোবর)। দিবসটি উপলক্ষে নানা ধরনের কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

২০১৭ সালের ৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই দিনটিকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ঘোষণা করা হয়। তারপর থেকেই জাতীয়ভাবে এ দিনটিকে নিরাপদ সড়ক দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবন হতে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ২০২০-এর আলোচনা সভায় (ভার্চুয়াল) অংশগ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে সড়ক নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনগুলোও নানা ধরনের কর্মসূচি পালন করছেন বলে জানা গেছে।

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস-২০২০ উপলক্ষে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেছেন, ‘দেশে প্রতিবছর হাজার হাজার মানুষ সড়কে প্রাণ দিচ্ছে, আহত হচ্ছে, পঙ্গু হচ্ছে। তাদের সুরক্ষা দিতে এই দিবসটি অন্যান্য জাতীয় দিবসের ন্যায় গতানুগতিকভাবে একদিন পালন না করে, নিরাপদ সড়ক দিবসকে কেন্দ্র করে মাসব্যাপী স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, নিরাপদ সড়ক ব্যবহার সংক্রান্ত আলোচনা সভা, মসজিদ-মন্দির-গির্জায় সড়ক দুর্ঘটনার ভয়াবহতা সংক্রান্ত আলোচনাসহ দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে সমাজের সকল স্তরে নিরাপদ সড়কের বার্তা পৌঁছে দেওয়া গেলে, দিবসটি উদযাপনের সুফল পাওয়া যাবে।’

এদিকে, বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পর্যবেক্ষণ মতে, ২০১৫ সাল থেকে সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী বিগত ৫ বছরে ২৬ হাজার ৯০২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৭ হাজার ১৭০ জন নিহত ও ৮২ হাজার ৭৫৮ জন আহত হয়েছে।

যাত্রী কল্যাণ সমিতির প্রতিবেদনে দেখা গেছে, বিগত ২০১৫ সালে ৬ হাজার ৫৮১টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ হাজার ৬৪২ জন নিহত, ২১ হাজার ৮৫৫ জন আহত হয়েছে। ২০১৬ সালে ৪ হাজার ৩১২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ হাজার ০৫৫ জন নিহত, ১৫ হাজার ৯১৪ জন আহত হয়েছে। ২০১৭ সালে ৪ হাজার ৯৭৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৩৯৭ জন নিহত, ১৬ হাজার ১৯৩ জন আহত হয়েছে। ২০১৮ সালে ৫ হাজার ৫১৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ২২১ জন নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে ১৫ হাজার ৪৬৬ জন। ২০১৯ সালে ৫ হাজার ৫১৬টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ৮৫৫ জন নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে ১৩ হাজার ৩৩০ জন।

উল্লেখ্য, মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চন নিহত হন। তারপর গত দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে যাচ্ছেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। নিরাপদ সড়ক গড়ে তুলতে করেছেন নিরাপদ সড়ক চাই নামের একটি সংগঠন। তারপর ২০১৭ সালের দিকে তার স্ত্রীর মৃত্যু দিবসকে কেন্দ্র করে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে, এখন বর্তমানে জাতীয়ভাবে দিবসটি উদযাপিত হচ্ছে।