ঘর ও সোলার দেওয়ার নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গাইবান্ধা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার অসহায় মানুষদের সরকারি ঘর ও সোলার দেওয়ার নামে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আইজিএ প্রকল্পের বিউটিশিয়ান আমেনা বেগমের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) জানা যায়, সাদুল্লাপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের আওতায় আইজিএ প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। এ প্রকল্পে কর্মরত বিউটিশিয়ান আমেনা বেগম স্থানীয় সহজ সরল মানুষদের সরকারি ঘর ও সোলার দেওয়ার নামে অর্থ আদায় করে আসছিলেন।

এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলার খোর্দ্দ পাটানোছা গ্রামের মৃত মেনাজ উদ্দিনের ছেলে সিএনজি চালক মোস্তফা মিয়াকে অটো চেইন মাস্টার মোস্তাম মিয়ার মাধ্যমে সরকারি ঘর নিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেয়। ঘর পাওয়ার স্বপ্নে ৪ সেপ্টেম্বর নগদ ১০ হাজার টাকা দেওয়া হয় আমেনা বেগমকে। একইভাবে শারীফা বেগম নামের আরেক নারীকে দুটি সোলার দেওয়ার কথা বলে ৬ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বিউটিশিয়ান আমেনা বেগম। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও ওইসব সুবিধা দেয়া হয়নি মোস্তফা ও শারীফাকে।

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে ভুক্তভোগীরা আমেনা বেগমের নিকট টাকা ফেরত চাইলে নানা টালবাহানা করে আসছে তিনি। এখন পর্যন্ত প্রদেয় টাকা ফেরত পায়নি ভুক্তভোগীরা। এভাবে উপজেলার বিভিন্ন অসহায় মানুষদের সঙ্গে আমেনা বেগম প্রতারণা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে অটো চেইন মাস্টার মোস্তাম মিয়া বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বরাবরে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহনাজ আক্তার বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সত্যতা পেলে অভিযুক্ত আমেনা বেগমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।