নোয়াখালীতে গৃহকর্মী ধর্ষণ, মোটরসাইকেল চালক শ্রীঘরে



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার হরণী ইউনিয়নে (১৮) বছর বয়সী গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালককে আটক করেছে পুলিশ। 

সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর ৩টায় নির্যাতিতা গৃহকর্মীর মামলায় ধর্ষক হেলাল উদ্দিনকে (৪০) গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। সোমবার ভোরে উপজেলার কাজিরটেক থেকে অভিযুক্ত আসামিকে আটক করা হয়। 

ধর্ষক হেলাল উদ্দিন হরণী ইউপির কাজিরটেক গ্রামের মাহফুজুর রহমানের বসিন্দা এবং দ্বীপ উপজেলার হাতিয়ার ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক। অপর আসামি ধর্ষকের সহযোগী পলাতক জামসেদ উপজেলার রহমতপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এর আগে, গত শনিবার (২৪ অক্টোবর) রাতে উপজেলার হরণী ইউনিয়নের পূর্ব রসুলপুর গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদীর পাড়ে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। পরে রোববার দুপুরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গৃহকর্মী বাদী হয়ে হাতিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

হাতিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নির্যাতিতা যুবতী লক্ষ্মীপুরে একটি বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করত। কয়েকদিন আগে বাড়িতে আসে সে । গত ২৪ অক্টোবর শনিবার গভীর রাতে প্রকৃতির ডাকে ওই গৃহকর্মী ঘর থেকে বের হলে ওঁৎ পেতে থাকা হেলাল ও জামসেদ তাকে তুলে নিয়ে যায় । পরে জামসেদের সহযোগিতায় হেলাল তাকে মেঘনা নদী সংলগ্ন এলাকায় জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ওসি আবুল খায়ের জানান, গ্রেফতারকৃত হেলালকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামি জামসেদকে গ্রেফতারে পুলিশ জোর চেষ্টা চালাচ্ছে।