নাটোরে এসিডে স্ত্রীর শরীর ঝলসে দিলো স্বামী! 



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নাটোর
নাটোরে এসিডে স্ত্রীর শরীর ঝলসে দিলো স্বামী! 

নাটোরে এসিডে স্ত্রীর শরীর ঝলসে দিলো স্বামী! 

  • Font increase
  • Font Decrease

পারিবারিক কলহের জেরে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোয়ারী ইউনিয়নের কামারদহ গ্রামে স্ত্রী নার্গিস আক্তার নুপুরের(৩০) শরীরে এসিড নিক্ষেপ করেছে স্বামী আবু তালেব। এতে চোখসহ তার মুখমণ্ডল পুড়ে গেছে।

আহত অবস্থায় গৃহবধূ নুপুরকে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ও পরে নাটোর সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নততর চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানকার চিকিৎসকরা অধিকতর উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ দিলে নুপরকে ঢাকায় নেয়া হচ্ছে।

সোমবার(২৩ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৭টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে স্বামী আবু তালেব পলাতক রয়েছেন।

বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, গত এক বছর ধরে সাংসারিক বিভিন্ন বিষয়ে গৃহবধু নার্গিস আক্তার নুপুর ও স্বামী আবু তালেবের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিলো না। এতে বেশ কয়েকবার পারিবারিকভাবে তাদের নিয়ে বিচার সালিশ করেছে স্থানীয়রা। এরই ধারবাহিকতায় আজ রাতে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হলে স্বামী তালেব এসিড এনে নুপুরের মুখে নিক্ষেপ করে। এ সময় নুপুরের আত্মচিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এলে স্বামী পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় নুপুরকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে নাটোর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। নাটোর সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে ঢাকায় নেয়া হচ্ছে।

ওসি আরও জানান, স্বামী তালেবকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।