বাবুনগরী-মামুনুলের গ্রেফতার দাবি ৬০ সংগঠনের



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বাবুনগরী ও মামুনল হক। ছবি: সংগৃহীত

বাবুনগরী ও মামুনল হক। ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও সংবিধান অবমাননার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের আমির জুনাইদ বাবুনগরী এবং যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবীদের ৬০টি সংগঠন।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) বেলা ৩টার দিকে নগরীর মৎস ভবন থেকে শুরু হয়ে শাহবাগ হয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ছবির হাট পর্যন্ত এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া অনেকের হাতে ছিল নানা ধরনের প্ল্যাকার্ড। দীর্ঘ এই মানবন্ধনে বিভিন্ন সংগঠনের নেতা ও কর্মীরা অংশ নেন। আর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সামনে আনুষ্ঠানিকভাবে বক্তব্য রাখেন বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।

মানববন্ধনে সূচনা বক্তব্যে সাত দফা দাবি তুলে ধরেন রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশের আহ্বায়ক সাংবাদিক আবেদ খান। বিভিন্ন সংগঠনের এই দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- অবিলম্বে জাতির পিতা এবং বাংলাদেশের সংবিধান অবমাননাকারী মামুনুল-বাবুনগরী গংকে গ্রেফতার করতে হবে এবং করোনা মহামারিকালে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনকারী সব ধরনের সমাবেশ নিষিদ্ধ করতে হবে। আবেদ খান বলেন, ধর্মের পবিত্রতা রক্ষার জন্য ও ধর্মের নামে যাবতীয় হত্যা ও সন্ত্রাস বন্ধের উদ্দেশ্যে ৩০ লাখ শহীদের রক্তে লেখা সংবিধানে বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী ও তাদের সহযোগীরা ধর্মের নামে রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিলেন। আমরা সরকারের নিকট দাবি জানাচ্ছি— অবিলম্বে বাংলাদেশে জামায়াত-হেফাজতের মৌলবাদী-সাম্প্রদায়িক-সন্ত্রাসী রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে হবে।

এছাড়া বিভিন্ন স্থানে ওয়াজ মাহফিল ও খুৎবার নামে ভিন্ন ধর্ম, ভিন্নমত, নারী এবং ভিন্ন জীবনধারায় বিশ্বাসীদের প্রতি ঘৃণা-বিদ্বেষ প্রচারকারী ‍ও হুমকিদাতাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে।

মানববন্ধনে যুবলীগ সভাপতি শেখ ফজলে শামস, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির, সাংবাদিক আবেদ খান, ইতিহাসের অধ্যাপক, গবেষক মুনতাসীর মামুন, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটারের সভাপতি সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসিরউদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবীব, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্তসহ আরও অনেকে কর্মসূচিতে যোগ দেন।