‘আ.লীগ ক্ষমতায় থাকলে দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়ন হয়’



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। ছবি: বার্তা২৪.কম

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় আসে তখন দক্ষিণাঞ্চলে উন্নয়ন হয়, কিন্তু অন্য সরকার আসলে দক্ষিণাঞ্চল অবহেলিত থাকে। শেষ স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে পদ্মাসেতু রেডি হয়ে গেছে।

আগামী এক থেকে দেড় বছরের মধ্যে আমরা পদ্মাসেতুর উপর দিয়ে গাড়ি নিয়ে ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টার বরিশাল থেকে ঢাকায় যেতে পারবো। এটা আমরা স্বপ্নেও ভাবিনি। আগে একটি কথার প্রচলন ছিল যে, কোন জেলায় রেল নেই? উত্তর ছিল বরিশাল। কিন্তু পদ্মা সেতুর কারণে সেই কথাও আর কেউ বলতে পারবে না। আমাদের এখানেও রেল চলবে। বরিশাল থেকে ঢাকায় ট্রেনে চেপে যাব।’

নদী ভাঙন পরিদর্শন করেন প্রতিমন্ত্রী। ছবি: বার্তা২৪.কম

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) বরিশাল সদর উপজেলার চন্দ্রমোহনে “চন্দ্রমোহন দাখিল মাদ্রাসা” ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও “চন্দ্রমোহন ৬৯ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়” নতুন ভবন শুভ উদ্ধোধন এবং কালাবদর ও আড়িয়াল খা নদী ভাঙন পরিদর্শন উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

চন্দ্রমোহনবাসীর উদ্দেশ্যে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, ‘আমার কাছে আশ্চর্য লাগে বরিশাল একটি বিভাগীয় শহর। এই শহরের পাশেই সদর উপজেলা কিভাবে সেই এলাকাটি অবহেলিত থাকে! গেলো ৫ টাইম অর্থাৎ ২০-২৫ বছর এই সদর উপজেলার সংসদ সদস্য ছিলেন তারা কি করেছেন? বিগত ২০ বছরে বরিশাল সদর উপজেলায় কোন কাজ হয়নি। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী হিসেবে সারাবাংলাদেশে নদীভাঙনগুলো দেখার কাজ আমার। বরিশালেও আমাদের বেশ কিছু প্রকল্প চলছে, আর এ অঞ্চলের নদী ভাঙন রোধে আরো বেশ কিছু প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে।’

ভাস্কর্য বিষয়ে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক- এমপি বলেছেন, ‘ভাস্কর্য পৃথিবীর সব মুসলিম দেশেই আছে। পাকিস্তানের বেনজির ভুট্টো বিশাল একটা ছবিতে হাত নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে, মোহাম্মদ আলী জিন্নার ভাস্কর্য আছে। পাকিস্তানতো কট্টোর পন্থী ইসলামিক দেশ। আমি মনে করি, আমরা যদি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করি, মিথ্যা কথা না বলি, আমরা চুরি না করলে আল্লাহ আমাদের দোযখ থেকে বাঁচিয়ে নিয়ে যাবেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে সংসদ সদস্য বানিয়েছেন জনসেবা করার জন্য। এর বাহিরে আমি কিছু চিন্তা করি না।’

নদী ভাঙনের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, আমি যেখানেই যাই নদী ভাঙন দেখি, দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণের চেষ্টা করি, নির্দেশনাও দিতে পারি যাতে দ্রুত কাজ শুরু হয়। তবে মনে রাখতে হবে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কাজ শুরু হতে একটু সময় লাগে। কারণ আমাদের দেশের একেক জায়গার নদীর চারিত্রিক বৈশিষ্ট একেক রকম। এজন্য একেক জায়গায় ভাঙন রোধে একেক ধরনের কাজ করতে হয়। তাই কারিগরি কমিটির সঠিকভাবে কাজ করতে সময় লাগে।