কৃষকেরা এখন ফসলের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কৃষকরা যাতে সরাসরি সরকারকে ধান-চাল সরবরাহ করতে পারে সেজন্য অতন্দ্র প্রহরীর মতো কৃষক লীগের নেতাকর্মীরা কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র ।

আওয়ামী কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির এই সভাপতি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে সারাদেশের কৃষকেরা এখন ভালো আছে। তারা এখন ধান, পাট, সবজিসহ সকল ফসলের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন। তবে এখনও মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য কমেনি।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে রংপুর নগরের সাতমাথা মোড়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে তিনি সকালে সাতমাথা মোড়ে মহানগর কৃষক লীগের আয়োজিত আলোচনা সভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

প্রান্তিক পর্যায়ের চাষীদেরকে মধ্যস্বত্বভোগীদের ফাঁদ থেকে বের করে আনতে সরকার বিভিন্ন ভাবে কাজ করে যাচ্ছে উল্লেখ করে কৃষক লীগ সভাপতি সমীর চন্দ্র বলেন, মধ্যস্বত্বভোগীদের বিতাড়িত করতে হবে। সরকার সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান-চাল সরবরাহে আন্তরিক। এ কাজে প্রধানমন্ত্রী কৃষক সংগঠনের প্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করতে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। কারণ মধ্যস্বত্ব ভোগীদের হটিয়ে কৃষকদের বাঁচাতে হবে। 

তিনি আরো বলেন, দেশের দুর্যোগকালীন সময় সহ সারা বছর কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে কৃষক লীগ। জাতির পিতাকে কৃষকদের কাছে স্মরণীয়-বরণীয় করে রাখতে উত্তরবঙ্গের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়নসহ সারাদেশে শীতার্ত কৃষকদের মাঝে কম্বলের উষ্ণতা ছড়িয়ে দিতে কাজ করছি।

এর আগে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল প্রমুখ। এতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর কৃষক লীগের সভাপতি কামরুজ্জামান পাটোয়ারী মিঠু।

আলোচনা সভা শেষে নগরীর বিভিন্ন এলাকায থেকে আসা ২ শতাধিক শীতার্ত কৃষকের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।