কুষ্টিয়ায় রাইস ট্রান্সপ্লান্টারে চারা রোপণ বাড়ছে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কুষ্টিয়া অঞ্চলের কৃষকদের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারে মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ। ফলে অল্প সময়ে বেশি জমিতে ধান রোপণ করা সম্ভব হচ্ছে। এতে সাশ্রয় হচ্ছে সময় ও অর্থ। আর অধিক লাভবান হচ্ছেন চাষিরা।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে চারা রোপন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন। কৃষির আধুনিকায়নে ২০২০-২০২১ অর্থবছরে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে একজন শ্রমিক দিনে ৩-৪ একর জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে পারেন। এতে একসঙ্গে ৬ সারিতে চারা রোপণ করা যায়। ফলে খরচ কমে ৫০ ভাগ। সনাতন পদ্ধতিতে এক বিঘা জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে কমপক্ষে চারজন শ্রমিককে কাজ করতে হয়। এতে খরচ হয় কমপক্ষে দুই হাজার থেকে আড়াই হাজার টাকা। আর রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে এক বিঘা জমিতে ধান রোপণ করতে খরচ হয় ৫০০-৭০০ টাকা।

জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘সরকার কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণের উদ্যোগ নিয়েছে। মেশিনের মাধ্যমে ধান রোপণের ফলে চাষিরা অধিক লাভবান হবেন। আর মেশিন ক্রয়ে সরকার চাষিদের আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে।’

মিরপুর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, ‘আগামীর কৃষি মানেই যন্ত্রনির্ভর কৃষি। যন্ত্রের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণের ব্যবস্থা করেছি। এর মূল কারণ হচ্ছে অল্প সময়ে অধিক জমিতে চারা রোপণ করা সম্বব হচ্ছে।’