মেহেরপুরে ভ্যাকসিন নিতে রেজিস্ট্রেশন করেছেন ১২শ’ জন



ডিস্ট্রিক্ট কসেপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম, মেহেরপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা ভ্যাকসিন নিতে মেহেরপুর থেকে এক হাজার ২০০ জন রেজিস্ট্রেশন করেছেন বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. নাসির উদ্দীন। শনিবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

প্রসঙ্গত, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে আগামীকাল রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) থেকে। প্রথম ধাপে মেহেরপুর জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে পৌঁছেছে ১২ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ভ্যাকসিন নিতে শনিবার সকাল পর্যন্ত সদরে ৭৮৭ জন, গাংনী উপজেলায় ৩১৩ জন ও মুজিবনগর উপজেলায় ১০৯ জন রেজিস্ট্রেশন  করেছেন। তবে সার্ভারে সমস্যার কারণে বিকেল পর্যন্ত আরও কতোজন রেজিস্ট্রেশন করেছেন তা জানা যায়নি।

জানা গেছে, রোববার সকাল ১০টায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশব্যাপী ভার্চুয়ালি এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। এর পরে দুপুর ১২টায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ও মেহেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন ভার্চুয়াল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে সদর হাসপাতালে এ কার্যক্রম শুরু হবে।

মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডা. নাসির উদ্দীন বলেন, ‘উদ্বোধনের সময়ই আমি ভ্যাকসিন গ্রহণ করবো। এছাড়া পর্যায়ক্রমে জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসন, পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ভ্যাকসিন নেবেন। মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতাল, গাংনী ও মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একযোগে এ কার্যক্রম শুরু করা হবে।’

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম রিয়াজুল আলম বলেন, ‘গাংনী হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই) আব্দুর রশিদ এ উপজেলায় প্রথম ব্যক্তি হিসেবে ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন। পরে রেজিস্ট্রেশনের সিরিয়াল অনুযায়ী ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।’

মুজিবনগর উপজেলাতেও একইভাবে দুপুর বারটার দিকে ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মজিবুর রহমান।

এদিকে সাধারণ মানুষের মাঝে ভ্যাকসিন নিয়ে নানা সংশয় দেখা গেছে। ভ্যাকসিন নিয়ে যাতে কোনও নেতিবাচক প্রভাব না পড়ে সে জন্য সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রথম দিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী, অনুমোদিত বেসকারি স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের জনবল, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বীরঙ্গনা, সম্মুখ সারির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, সামরিক বাহিনী, রাষ্ট্র পরিচালনায় নিমিত্ত অপরিহার্য কার্যালয়, সম্মুখসারীর গণমাধ্যমকর্মী, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিসহ গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তিদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।