আইনের অপপ্রয়োগ আপেক্ষিক ব্যাপার: প্রধানমন্ত্রী



সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আইন তো আপন গতিতে চলে। এখন আইনের অপপ্রয়োগ হচ্ছে কিনা? এটা হলো দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপার। এখন কোনটা আপনার কাছে অপপ্রয়োগ আর কোনটা অপপ্রয়োগ না, এটা একটা আপেক্ষিক ব্যাপার। কিন্তু আমি তো মনে করি আইন তার নিজ গতিতেই চলছে এবং চলবে।’

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যদি কেউ অপরাধ না করে তার বিচারে শাস্তি হবে না। কিন্তু আদৌ অপরাধ হচ্ছে কি না বা এমন কোন কাজ করছে কি না যেটা দেশের ক্ষতি হচ্ছে বা জনগণের ক্ষতি হচ্ছে সে কাজটাকে বিরত করা।’

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ করে দিয়েছি সে কারণে আপনাদের সঙ্গে অনেক দিন পরে হলেও দেখা হলো। আর ডিজিটাল বাংলাদেশ পেয়েছিল বলেই বাংলাদেশের অর্নীতির চাকাটাও সচল রাখতে পেরেছি। অর্থনৈতিক কার্যক্রম করতে পারছি, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করতে পারছে, প্রত্যেকে কাজ করতে পারছে। এটা হলে তো পারতাম না হয়তো এগুতেও পারতাম না কোথায় যে কি ঘটত জানতেও পারতাম না। সুযোগটা নেবেন কিন্তু সেই সুযোগটা যেন মানুষের জন্য ক্ষতিকারক না হয় সেটা অবশ্যই দেখতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ যখন গড়ে ‍তুলেছি তখন ডিজিটাল নিরাপত্তা দেওয়াও আমাদের দায়িত্ব। এই দায়িত্বটা আমাদের পালন করতে হবে এই কারণে যে ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে আমাদের দেশের ছোট্ট শিশু থেকে শুরু করে যুবক থেকে শুরু করে তারা কেউ যেন বিপথে না যেতে পারে। বা তাদের কোন রকম অসামাজিক কার্যকলাম বা কোন ধরণের জঙ্গিবাদ বা সন্ত্রাস বা অন্য কোন ধরণের কোন কিছুর সাথে জড়িত হতে না পারে। এমন কোন কাজ না করা যেটা দেশের জন্য ক্ষতি হয় দেশের মানুষের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। সেজন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ করার সাথে ডিজিটাল নিরাপত্তা দেওয়া একান্তভাবে অপরিহার্য। এ ব্যাপারে আজকের দিনে আর বেশি কিছু বলতে চাই না। তবে এটুকু বলব সমালোচনা যারা করছে তারা করবেই। কারা সব থেকে বেশি সমালোচনা করছে তারা বাস্তব কথাটা কি একবার উপলদ্ধি করতে পারে? বা উপলদ্ধি করছে? তারা তো তা করছে না।

তিনি বলেন, আজকে শুভ দিন অন্য কোন কথা বলতে চাই না। আমার বয়স তো ৭৫ বছর। সেই স্কুল জীবন থেকেই তো রাস্তায় নামি বা ১৯৬২ সাল থেকে কিন্তু পথে পথে মিছিলে মিছিলে যোগ দিয়েছি কাজেই এদেশের সবাইকে মোটামুটি চেনা আছে। কোথায় কে কি কারণে কি করেন সেটা আমার জানা আছে। হ্যাঁ কারো মৃত্যু কাম্য নয় কিন্তু সেটাকে কেন্দ্র করে একটা অশান্তির সৃষ্টি করা এটাও কিন্তু কাম্য নয়।