কলেজ শিক্ষককে রড দিয়ে পেটালো দুর্বৃত্তরা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজবাড়ী
কলেজশিক্ষককে রড দিয়ে পেটালো দুর্বৃত্তরা

কলেজশিক্ষককে রড দিয়ে পেটালো দুর্বৃত্তরা

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি নারুয়া লিয়াকত আলী স্মৃতি স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক মো.বদিউজ্জামান বদরকে (৪০) চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ও রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করেছে দুর্বৃত্তরা।

বর্তমান তিনি ফরিদপুর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় আহত শিক্ষকের বড় ভাই মো. ইসলাম মন্ডল বাদী হয়ে বালিয়াকান্দি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ৩/৪৭।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বালিয়াকান্দি থানা কর্তৃপক্ষ।

আহত বদিউজ্জামান নারুয়া ইউনিয়নের কোনাগ্রাম গ্রামের মৃত ওয়াছেল মন্ডলের ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ের জেরে রোববার (৪ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ৩টার দিকে নারুয়া ইউনিয়নের কোনাগ্রামের মৃত তিজারত মন্ডলের ছেলে বিএনপি নেতা শাহাদত মন্ডলের নির্দেশে একই গ্রামের আলীবদ্দি মন্ডলের ছেলে ইলিয়াস মন্ডল ও জাকির মন্ডলের ছেলে ইরান মন্ডল হত্যার উদ্দেশ্যে কোনাগ্রামের বাইতুল মামুর জামে মসজিদের সামনে তার বহনকৃত মোটরসাইকেল গতিরোধ করে লোহার রড দিয়ে পা ও চাপাতি দিয়ে মাথা কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

এক পর্যায়ে আসামিরা বদিউজ্জামানকে মৃত ভেবে ফেলে রেখে চলে গেলে তার আর্তচিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। পরে আহত শিক্ষকের স্বজনরা দ্রুত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর হাসপাতালে ভর্তি করে এবং রাতেই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তার পায়ে অস্ত্রোপচার করান এবং মাথা ও হাতের বিভিন্ন ক্ষতস্থানে সেলাই করা হয়।

তার বাম পায়ের হাটু থেকে পায়ের গোড়ালি পর্যন্ত দুটি জায়গার মোট তিনটি অংশ ভেঙে গিয়েছে।

মামলার বাদী মো. ইসলাম মন্ডল জানান, মামলা করার পর মঙ্গলবার সকালে ৩ নং আসামি ইরান মন্ডলের বাবা জাকির মন্ডল মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি প্রদান করেন। মামলা তুলে না নিলে আমাকেও আমার ভাই বদিউজ্জামানের মতো মেরে হাসপাতালে পাঠাবে বলে হুমকি দেন।