হাতীবান্ধায় ব্যাংকের ভিতর থেকে শিক্ষিকার টাকা ছিনতাই



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, লালমনিরহাট
ভুক্তভোগী শিক্ষিকা

ভুক্তভোগী শিক্ষিকা

  • Font increase
  • Font Decrease

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় নাজমা আক্তার নামে এক শিক্ষিকার ৪০ হাজার টাকা ব্যাংকের ভিতর থেকেই ছিনতাই করা হয়েছে। বিষয়টি ব্যাংক ম্যানেজেরকে অবগত করা হলেও তিনি কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নি।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) সকাল ১১টার দিকে হাতীবান্ধা সোনালী ব্যাংকের ভিতরে ক্যাশ কাউন্টারের নিকট এ ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী ওই শিক্ষিকা উপজেলার গোতামারী ইউনিয়নের ঘুটিয়া মঙ্গল পাড়া এলাকার রেজাউল করিমের স্ত্রী এবং গোতামারী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৬ মে) সকালে হাতীবান্ধা সোনালী ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের জন্য যান নাজমা আক্তার। ৪০ হাজার টাকা উত্তোলনও করেন। এ সময় নাজমার পাশে দাড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তি টাকা গুনে দেওয়ার কথা বলে জোর পূর্বক টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।

নাজমা আক্তার কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমি যখনই টাকা উত্তোলন করলাম, তখনই ওই ব্যক্তি বললো টাকা গুনে নেন। আমি বললাম গুনতে হবে না। তারপর উনি আবার বললো ছেড়া আছে কিনা দেখেন। আমি তাতেও রাজি হয়নি। কিন্ত উনি জোড় করে টাকাটা হাত থেকে নিলেন এবং নিমিষেই চলে গেলে। আমি কিছুই বুঝে উঠতে পারি নাই। আমি ব্যাংক ম্যানেজারকে বিষয়টি অবগত করি। কিন্তু তিনি কোন আগ্রহ দেখালেন না, উল্টো আমাকে রাগ দেখিয়ে জোর করে ব্যাংক থেকে বের করে দেয়।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা সোনালী ব্যাংকের ম্যানেজার আসাদুজ্জামান রাজু বলেন, মহিলা নিজেই ওই লোককে টাকা দিয়েছে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। ব্যাংকের সিসি ক্যামেরা আছে কিনা? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ব্যাংকে কোন সিসি ক্যামেরা নেই। সিসি ক্যামেরার জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে বেশ কয়েকবার বলা হয়েছে। এখনো কোন ব্যবস্থা নেননি তারা।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, বিষয়টি জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে, তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।