বরিশালে ঘুষ দিয়েও বৃদ্ধার ভাগ্যে জোটেনি বিধবা ভাতা



উজিরপুর প্রতিনিধি, বার্তা২৪.কম, বরিশাল
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

  • Font increase
  • Font Decrease

বরিশালের উজিরপুরে ঘুষ দিয়ে বিধবা ভাতা না পেয়ে ঘুষের টাকা ফেরৎ চাইলে ইউপি সদস্য কর্তৃক অসহায় দিন মজুরের উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার (১০ মে) বৃদ্ধার আপন ভাই হতদরিদ্র ট্রলারের শ্রমিক মানিক সিকদার (৫৬) ইউপি সদস্য স্বপনের কাছে তার বাড়িতে গিয়ে ঘুষের টাকা ফেরৎ চাওয়া মাত্র তার উপর চড়াও হয়ে কিলঘুষি ও ঘাড় ধাক্কা দিয়ে তাকে তাড়িয়ে দেয়। মুহুর্তের মধ্যে হামলার ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। এ ঘটনায় ক্ষুব্দ এলাকাবাসী।

স্থানীয় ও ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়াকোঠা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড লস্করপুর গ্রামের প্রভাবশালী ইউপি সদস্য মোঃ স্বপন হাওলাদার ওই গ্রামের মৃত জয়নাল সিকদারের মেয়ে হতদরিদ্র সাফিয়া বেগম (৮০) এর কাছ থেকে বিধবাভাতা দেওয়ার কথা বলে ১২০০ টাকা হাতিয়ে নেয়। কিন্তু ওই বৃদ্ধা বিধবা নারীর ভাগ্যে জোটেনি ভাতা।

ভূক্তভোগী মানিক সিকদার জানান, ইউপি সদস্য স্বপন হাওলাদারের কাছে আমার বোনের টাকা ফেরৎ চাইতে গেলে আমার উপর হামলা চালায়। এতেও সে ক্ষান্ত হয়নি। আমাদের পরিবারকে বিভিন্ন ভয়ভীতি ও এলাকা ছাড়া করার হুমকি দিচ্ছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য স্বপন হাওলাদার জানান, আমি সামান্য ধাক্কা দিয়েছি। বিষয়টি নিয়ে মিমাংশার চেষ্টা চলছে।

ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. সহিদুল ইসলাম মৃধা জানান, বিষয়টি তার অবগত নয়।

স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, সে এলাকায় বিভিন্ন জনের কাছ থেকে বিধবাভাতা, বয়স্কভাতা, গর্ভকালীন ভাতা, হতদরিদ্রের মাঝে ঘর বিতরণসহ সরকারি সকল ধরণের সুযোগ-সুবিধা বিষয়ে দূর্নীতি ও অনিয়ম চালিয়ে আসছে। এমনকি যোগ্য পাত্রে অন্নদান না করে নিকটতম আত্মীয় স্বজনের মাঝে সরকারি সহায়তা প্রদান করে থাকেন ইউপি সদস্য স্বপন।

এলাকার একাধিক ব্যক্তি তার বিরুদ্ধে আরও দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে বলেন, স্বপন মেম্বর তার নিকটতম স্বচ্ছল আত্মীয়দের প্রধানমন্ত্রীর উপহার দেয়া ঘর বিতরণ করেন। সেই ঘরে মানুষ বসবাস করছে না, চলছে স্বপন মেম্বারের ছাগল লালন পালন।

এদিকে ওই দূর্নীতিবাজ ইউপি সদস্যকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন সুবিধা বঞ্চিত পরিবার ও এলাকাবাসী।