কোম্পানীগঞ্জে ফের গুলি, পালাতে গিয়ে আহত ৫



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
কোম্পানীগঞ্জে ফের গুলি

কোম্পানীগঞ্জে ফের গুলি

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে বাদলের অনুসারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ার অভিযোগ উঠেছে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের বিরুদ্ধে । এ সময় পালাতে গিয়ে আহত হয়েছেন পাঁচজন।

বৃহস্পতিবার (১৩ মে) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের করালিয়ার তিন রাস্তার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং এক রাউন্ড ব্যবহৃত কার্তুজ উদ্ধার করে।

আহতরা হলো, পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের নুর মোহাম্মদ রাজীব (৩০), আরিফুর রহমান রাহীম (২৮), পৌরসভা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের করিম উদ্দিন শাকিল (২৩), কোরবান আলী রাকীব (২৪) ও রাজীব আহমেদ রিয়াদ (২৪)। আহতরা কাদের মির্জার প্রতিপক্ষ মিজানুর রহমান বাদলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

হামলার শিকার শাকিল অভিযোগ করেন, তারা বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পৌরসভা ৩ নম্বর ওয়ার্ডের করালিয়ার তিন রাস্তার মোড়ের পাশে বসে ১০-১২ জন গল্প করছিলেন। এসময় কাদের মির্জার অনুসারী কেচ্ছা রাসেল ও ডাকাত পিচ্ছি মাসুদের নেতৃত্বে ১০-১৫ জনের একটি অস্ত্রধারী গ্রুপ আমাদেরকে লক্ষ্য করে তিন রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও পালাতে গিয়ে আমরা ৫ জন আহত হই।

কোম্পানীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সেলিম মিয়া ঘটনাস্থল থেকে জানান, ঘটনাস্থল থেকে এক রাউন্ড ব্যবহৃত কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগীদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, কেচ্ছা রাসেল নামের এক যুবকের নেতৃত্বে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

এ বিষয়ে জানতে কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনির মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।