মানিকগঞ্জে ইউএনও'র ফোন নম্বর ক্লোন, গ্রেফতার ২



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মানিকগঞ্জ
মানিকগঞ্জে ইউএনও'র ফোন নম্বর ক্লোন, গ্রেফতার ২

মানিকগঞ্জে ইউএনও'র ফোন নম্বর ক্লোন, গ্রেফতার ২

  • Font increase
  • Font Decrease

মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মোবাইল নম্বর ক্লোন করে ইউএনও পরিচয় দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে ১৮ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় এক প্রতারক চক্র। এ ঘটনার প্রায় তিন বছর পর প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে মানিকগঞ্জ সিআইডি।

মঙ্গলবার (১ জুন) সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সিআইডি’র ইন্সপেক্টর আনারুল ইসলাম বার্তা২৪.কম’কে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে দুপুরে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদেরকে আদালতে পাঠায় সিআইডি পুলিশের একটি দল।

গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন, লালমনিরহাট জেলার কালিগঞ্জ থানার রুদ্রেশ্বর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে মো. নাজমুল হক (২৪) এবং একই উপজেলার মহিষমুড়ি এলাকার আলতাব হোসেনের ছেলে মো. রাকিবুল ইসলাম (২২)।

সিআইডি’র দেওয়া তথ্যানুসারে, ২০১৮ সালের ২৬ আগস্ট শিবালয় উপজেলার জাফরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলমগীর হোসেনকে ফোন করে প্রতারক চক্রটি। সরকারিভাবে অনুদান আসা দুইটি ল্যাপটপ তার বিদ্যালয়ে দেওয়ার জন্য খরচ বাবদ ১৮ হাজার টাকা দাবি করে তার নিকট।

শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মোবাইল নম্বর ক্লোন করে ইউএনও পরিচয় দিয়ে একটি বিকাশ নম্বরের দ্রুত ১৮ হাজার টাকা পাঠাতে বলা হয় তাকে। পরে প্রতারক চক্রের দেওয়া মোবাইল নম্বরে ১৮ হাজার টাকা পাঠান ওই শিক্ষক। এরপর অন্যান্য শিক্ষকদের সঙ্গে আলাপ করে তার ভুল বুঝতে পারেন তিনি।

এর পরদিন এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন। ঘটনার দীর্ঘ সময় পর এই প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে সোমবার (৩১ মে) লালমনিরহাট জেলার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে মানিকগঞ্জ সিআইডি পুলিশ।

এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ সিআইডি’র ইন্সপেক্টর আনারুল ইসলাম বলেন, লালমনিরহাট থেকে দেশের বিভিন্ন জেলার সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তাকে টার্গেট করে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মোবাইল নম্বর ক্লোন করে অর্থ আত্মসাৎ করার সঙ্গে জড়িত রয়েছে একটি চক্র।

এই চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি সদস্যদেরকে গ্রেফতারে অভিযান চলমান রয়েছে। গ্রেফতার হওয়া যুবকরা তাদের দোষ স্বীকার করে আদালতের নিকট জবানবন্দি দিয়েছে বলেও জানান তিনি।