নারী কেলেঙ্কারি: ইউপি সদস্যকে গাছে বেঁধে পেটালো এলাকাবাসী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
ইউপি সদস্যকে গাছে বেঁধে পেটালো এলাকাবাসী

ইউপি সদস্যকে গাছে বেঁধে পেটালো এলাকাবাসী

  • Font increase
  • Font Decrease

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে শাহজাহান আলী (৩৫) নামের এক ইউপি সদস্যকে গাছে বেঁধে পিটিয়েছে এলাকাবাসী।

শাহজান আলী উপজেলার রিফাইতপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য।

রোববার (১৩ জুন) দুপুরে উপজেলার রিফাইতপুর ইউনিয়নের আন্দালবাড়িয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, ইউপি সদস্য শাহজাহান আলী একজন নারী লোভী মানুষ। অতীতে তার তিন তিনটা স্ত্রী থাকলেও সপ্তাহ দুয়েক আগে রিফাইতপুর ইউপির আন্দলবাড়িয়া গ্রামের এক মেয়েকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করেন।

এ নিয়ে শাজাহান মেম্বারের স্ত্রীর সংখ্যা দাঁড়ায় চারে। রোববার দুপুরে ওই মেয়েকে সাথে নিয়ে তার বাবার বাড়িতে নিয়ে আসলে এলাকাবাসী ওই মেম্বারকে গণপিটুনি দিয়ে খেজুর গাছে বেঁধে রাখলে স্থানীয় দিগলকান্দি ক্যাম্পের পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে দিগলকান্দি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ হামিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শাজাহান মেম্বারের আগেও একাধিক বউ রয়েছে।তারপরেও সে একটি অবিবাহিত মেয়েকে বের করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে এলাকাবাসী মারধর করার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে তাকে উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবু জানান, এলাকাবাসী গাছে বেঁধে শাজাহান মেম্বারকে মারধরের ঘণ্টা খানেক পরে আমি বিষয়টা জানতে পারি, সে একটা মেয়েকে বের করে নিয়ে গেছে এই জন্য তাকে মারধর করা হয়েছে এর বেশি কিছু জানি না।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য অভিযুক্ত ইউপি সদস্য শাহজাহান আলীর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।