তিস্তা নদীতে গোসল করতে নেমে বাস চালকের সহকারী নিখোঁজ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
তিস্তা নদীতে গোসল করতে নেমে বাস চালকের সহকারী নিখোঁজ

তিস্তা নদীতে গোসল করতে নেমে বাস চালকের সহকারী নিখোঁজ

  • Font increase
  • Font Decrease

রংপুরের কাউনিয়ায় তিস্তা নদীতে গোসল করতে নেমে শামিম মিয়া (২২) নামের এক যুবক নিখোঁজ হয়েছেন।

সোমবার (২৬ জুলাই) দুপুরে কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের চর গনাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শামিম মিয়া ঢাকার মৌমিতা পরিবহন নামের বাস চালকের সহকারী হিসেবে কাজ করেন।

এলাকাবাসী জানায়, ঈদের আগের দিন তৈরি পোশাক কারখানায় কর্মরত কয়েকজন মিলে ঢাকার মৌমিতা পরিবহন নামের একটি বাস রিজার্ভ নিয়ে গ্রামে আসেন। ঈদের ছুটি শেষে আবার সেই বাসে ঢাকায় ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ২৩ জুলাই থেকে সরকার কঠোর লকডাউন ঘোষণা করলে ঈদে গ্রামে আসা তৈরি পোশাক কারখানার কর্মীরা, বাসের চালক, সুপারভাইজার ও চালকের সহকারীসহ গ্রামে আটকা পড়ে যায়।

সোমবার দুপুরে মৌমিতা পরিবহনের স্টাফরা মধুপুর ইউনিয়নের গোলজার বাজারে বাস রেখে তিস্তা নদীতে গোসল করতে নামে। এ সময় নদীর তীব্র স্রোতে অন্যরা উঠতে পারলেও চালকের সহকারী শামিম মিয়া পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়। তাদের চিৎকারে গ্রামের শতশত মানুষ নদী পাড়ে জমায়েত হয়। খবর দেওয়া হয় কাউনিয়া ফায়ার সার্ভিসে। পরে বিকাল সাড়ে চারটার দিকে রংপুর ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল শামিম মিয়াকে উদ্ধার অভিযানে নামেন।

টেপামধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি নিখোঁজের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তিস্তা নদীতে গোসলে নেমে পানিতে ডুবে শামিম নামে এক চালকের সহকারী নিখোঁজ হয়েছেন। তাকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল কাজ করছে।