সতীনের ছোঁড়া এসিডে শরীর ঝলসে গেল গৃহবধূর



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম, নওগাঁ
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার আতাইকুলা গ্রামে স্বামী ও সতীনের ছোঁড়া এসিডে বাতাসি বিবি (২৭) নামে এক গৃহবধূর শরীর ঝলসে গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটে। গৃহবধূ আতাইকুলা মধ্যপাড়া গ্রামের মজনুর রহমানের মেয়ে। এঘটনায় স্থানীয়রা বাতাসির স্বামী ওসমান আলী এবং তার সতীনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

বাতাসির স্বজনরা জানান, আত্রাই উপজেলার আন্দার কোটা গ্রামে ওসমান আলীর সাথে ৩ বছর আগে বাতাসির বিয়ে হয়। ওসমান প্রথম স্ত্রী রেখে বাতাসি কে বিয়ে করেছিলেন। বিয়ের পর থেকেই তাদের সংসারে দ্বদ্ব চলে আসছিল। দ্বন্দ্বের জের ধরে মঙ্গলবার রাতে স্বামী ওসমান আলী ও সতীন নার্গিস বিবির সাথে আবারো বাতাসির ঝগড়া হয়। বৃহস্পতিবার কথা কাটা-কাটির এক পর্যায়ে নার্গিস ভ্যানিটি ব্যাগ থেকে এসিডের বোতল বের করে সতীন বাতাসির উপর নিক্ষেপ করে। এতে বাতাটির শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়।

ঘটনার সময় পাশে থাকা খাদিজা আক্তার (৭), ইন্তাজ রিতা আক্তার (১৩) আকাশ হোসেন (৮) নামে আরো ৪ শিশুর শরীরে এসিড পরে আহত হয়েছে। ঘটনার সাথে সাথেই বাতাসিসহ আহত সবাইকে উদ্ধার করে রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। রানীনগরে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বাতাসি ও খাদিজাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।

রাণীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম বলেন, এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় স্বামী ওসমান ও সতীন নার্গিসকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।