স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ছড়িয়েছেন ভুয়া সেনা কর্মকর্তা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

তালাক দেওয়ায় রাজশাহীতে এক ভুয়া সেনা কর্মকর্তা তাঁর স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ছড়িয়ে দিয়েছেন সামাজিক মাধ্যমে। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ রবিউল ইসলাম ওরফে রবি (৩০) নামের এই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।

রবিউল সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল পরিচয় দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করতেন। রোববার রাতে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তায় দামকুড়া থানা পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। দামকুড়ার টিকর গ্রামে তাঁর বাড়ি।

আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, সেনা কর্মকর্তার পরিচয়ে রবিউল পাবনার সুজানগরের এক নারীর সাথে ফেসবুকে বন্ধুত্ব গড়ে তোলেন। একপর্যায়ে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। তারপর কৌশলে ওই নারীকে দিয়ে তাঁর স্বামীকে তালাক দেওয়ান। এরপর গত ১৩ আগস্ট রবিউল ওই নারীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই গোপনে রবিউল তাঁদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি তুলে রাখেন।

ওই নারীর অভিযোগ, রবিউল প্রায়ই মোবাইলে লেফটেন্যান্ট কর্নেল পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলতেন। তাঁদের সহযোগিতার নামে প্রতারণা করতেন। পাশাপাশি রবিউল তাঁকেও টাকার জন্য চাপ দিতে থাকেন।

তখন তিনি বুঝতে পারেন, রবিউল আসলে একজন প্রতারক। তাই গত ১৪ সেপ্টেম্বর রবিউলকে তিনি তালাক দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রবিউল ওই নারীর নামেই একটি ফেসবুক একাউন্ট খুলে তাঁদের অন্তরঙ্গ মূহুর্তের ছবি আত্মীয়-স্বজনকে পাঠাতে শুরু করেন। টাকা না দিলে এসব কর্মকাণ্ড বন্ধ হবে না বলেও হুমকি দেন।

নিরুপায় হয়ে ওই নারী দামকুড়া থানায় একটি অভিযোগ করেন। এরপর সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তায় পুলিশ রোববার রাতে রাজশাহী নগরীর কোর্ট স্টেশন এলাকা থেকে রবিউলকে গ্রেপ্তার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারক রবিউল তার অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন।

তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরেই ভুয়া সেনা কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন প্রতরণামূলক কাজ করে আসছিলেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে বলেও জানান আরএমপির মুখপাত্র।