মাছের সঙ্গে শত্রুতা!



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে রাতের আধারে পুকুরে বিষ ঢেলে প্রায় ২ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার (১৭ অক্টোবর) ভোর বেলা উপজেলার ৬নং চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নয়াপাড়া গ্রামের জোবায়েরের মৎস্য খামারে এ ঘটনা ঘটে। সে একই গ্রামের খালেক ডুবাইওয়ালা বাড়ির মো. আবদুল খালেকের ছেলে।

চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো.গোফরান উদ্দিন ও স্থানীয়রা জানান, রোববার ভোর রাতের দিকে কে বা কারা পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। এলাকাবাসী এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীকে চিহ্নিত করে উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানান।

মৎস্য খামারি মো.জোবায়ের হোসেন জামরুল বলেন, আমাদের পার্শ্ববর্তী মিয়া ডুবাইওয়ালার বাড়ির একটি পুকুর ১০ বছরের জন্য লিজ নিয়েছি। এখানে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করেছি। পার্শ্ববর্তী মৃত মজিবুল হকের বাড়ির মো.দেলোয়ার হোসেন রুবেল, টিপু সুলতান, আনোয়ার হোসেনসহ মুকবুল আহম্মদের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ আমাদের পারিবারিক কলহ রয়েছে। গত কয়েকমাস পূর্বে বিদ্যুতের খুঁটি নিয়ে তাদের সাথে আমাদের বাকবিতণ্ডা হয়েছে। এর কিছুদিন পর পুকুরে রাতের আধারে কে বা কারা বিষ ঢেলে প্রায় ৬-৭ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে। ঠিক একই রকম ভাবে আজ রোববার ভোর রাতের দিকে পুনরায় আমার দুই লাখ টাকার মাছ পূর্বের মতো পুকুরে বিষ ঢেলে নিধন করেছে। পুকুরের পাড়ে একটি বিষাক্ত সরঞ্জাম মিশানোর পলিথিন পেয়েছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মজিবুল হকের বাড়ির ফোনে কল করা হলেও তারা কেউ ফোন রিসিভ করেনি।

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল হক জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।