চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর পা ভেঙে দিলো সন্ত্রাসীরা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সাভার (ঢাকা)
ভুক্তভোগী ঝুট ব্যবসায়ী মো. খোকন মিয়া/ ছবিঃ বার্তা২৪.কম

ভুক্তভোগী ঝুট ব্যবসায়ী মো. খোকন মিয়া/ ছবিঃ বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সাভারের আশুলিয়ায় এক ঝুট ব্যবসায়ীর কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে হাতুড়ি পেটা করে দুই পা ভেঙ্গে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে বার্তা২৪.কমকে এ তথ্য জানান ভুক্তভোগী ঝুট ব্যবসায়ী মো. খোকন মিয়া।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) রাতে আশুলিয়ার গাজিরচট চাড়ালপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী খোকন মিয়া জানান, প্রতিদিনের মত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আশুলিয়া থানা এলাকার মো. সিরাজ মিয়ার বাগান বাড়িতে তিনি বসে ছিলেন। এসময় রাজবাড়ী এলাকার হাসান তাকে ব্যবসায়ীক কাজের জন্য বাইপাইল এলাকায় ডেকে নেয়। সেখানে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা মো. গাঊস ও রুমেলসহ ১০/১২ জন সন্ত্রাসী তাকে ঘিরে ফেলে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। একপর্যায়ে তাকে গাজিরচট চাড়ালপাড়া এলাকায় ময়লার স্তুপের পাশে নির্জন এলাকায় নিয়ে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে দুই পা ভেঙ্গে দেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা ব্যবসায়ীর কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে এ এলাকায় ঝুটের ব্যবসা করতে পারবে না বলে হুমকি দেয়। এসময় এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাবিব ক্লিনিকে মুমূর্ষ অবস্থায় ভর্তি করে। ঘটনায় সন্ত্রাসীদের ভয়ে আশুলিয়া থানায় কোন অভিযোগ করেননি ওই ব্যবসায়ী।

ব্যবসায়ী খোকন মিয়া আরও জানান, সন্ত্রাসীরা তাকে এখনও হুমকি দিচ্ছে যে, মামলা করলে তাকে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে।

এ ব্যাপারে হাবিব ক্লিনিকে আহতকে দেখতে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানান, হাসাপাতালে সন্ত্রাসীদের আনা গোনা দেখে রোগীকে রক্ষা করার জন্য পা দুটি প্লাস্টার করে ঔষধ দিয়ে অন্য কোথাও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ডেন্ডাবরের হাসান জানান, কে বা করা ব্যবসায়ী খোকনকে মেরেছে তা সে জানেন না। তবে ব্যবসায়ী খোকন সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন বলে স্বীকার করেন।

উল্লেখ্য, ব্যবসায়ী খোকন মিয়া পূর্বে স্থানীয় প্রভাবশালী সিরাজুল ইসলাম দেওয়ানের ঝুট ব্যবসার ম্যানেজার হিসেবে চাকরি করতেন। সেখান থেকে চাকরি ছেড়ে নিজে ঝুট কিনে ব্যবসা শুরু করেন। এ ব্যবসাই তার জন্য কাল হয়েছে বলে দাবি করেন খোকনের স্ত্রী।