দৌলতপুরে আ,লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংঘর্ষে আহত ৬



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় দুইজন গুলিবিদ্ধ ও অন্তত চারজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের কল্যানপুর বটতলা বাজারে এই সংঘর্ষ হয়। এর জন্য আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা একে অন্যকে দুষছেন।

হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম চৌধুরী বলেন, ‘আমার নির্বাচনী প্রচারের অফিসে নেতাকর্মীরা সন্ধ্যায় মানুষের সঙ্গে আলাপ করছিল। এমন সময় স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা আমার অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। আমার নেতাকর্মীরা বাধা দিলে হামলাকারীরা গুলি চালায়। আমার কর্মী সমর্থকদের মোটরসাইকেলে আগুন লাগিয়ে দেয়।’

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বিল্লাল হোসেনের ছেলে তরিকুল ইসলাম রকি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন বটতলা এসে লাভলু মাস্টারের ভাতিজা আমাদের কর্মী মাসুদকে তুলে নিয়ে যেতে চায়। তারা লাভলু মাস্টার ও মাসুদের বাড়ি ভাঙচুর করে। সেখানে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি করে। মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়। এরপর উল্টো তারা আমাদের উপর দোষ চাপিয়ে অভিযোগ দিচ্ছে।’

সংর্ঘষের তথ্য নিশ্চিত করে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. শফিক বলেন, ‘দুই পক্ষই একে অপরকে দোষারোপ করছে। বিষয়টি তদন্ত করে তারপর জানা যাবে প্রকৃত ঘটনা কী। সে অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে এই দৌলতপুর উপজেলায় ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রতীকে না থাকলেও উপজেলার বেশ কিছু ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে আছেন এর নেতারা। একই সঙ্গে প্রতিটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে।