৬০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতার দাবি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম ঢাকা
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

দফায় দফায় গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি ও নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিকভাবে মূল্যবৃদ্ধির কারণে নিম্ন আয়ের কর্মচারীরা হতাশাগ্রস্ত ও দিশেহারা। এজন্য সরকারি কর্মচারীদের অবিলম্বে ৬০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান, নতুন জাতীয় বেতন কমিশন গঠন, চিকিৎসা, যাতায়াত ও অন্যান্য ভাতা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ তৃতীয় শ্রেণি সরকারি কর্মচারী সমিতি।

বৃহস্পতিবার সমিতির পক্ষ থেকে মহাসচিব ছালজার রহমান, অর্থসচিব আতাউর রহমান, সহকারী মহাসচিব আনোয়ার হোসেন, ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মামুনসহ কেন্দ্রীয় নেতারা প্রধানমন্ত্রী বরাবর এই স্মারকলিপি পেশ করেন।

২০১৫ সালে সর্বশেষ (অষ্টম) জাতীয় বেতন স্কেল দেওয়ার পর চিকিৎসা ব্যয়সহ দফায় দফায় গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি ও নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিকভাবে মূল্যবৃদ্ধির কারণে নিম্ন আয়ের কর্মচারীরা হতাশাগ্রস্ত ও দিশেহারা। বার্ষিক পাঁচ শতাংশ হারে বেতন বৃদ্ধি হলেও তা জীবনযাত্রার ব্যয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্যহীন। এ অবস্থায় অবিলম্বে নবম জাতীয় বেতন কমিশন গঠন ও বৈষম্যহীন বেতন কাঠামো বাস্তবায়ন এবং নবম জাতীয় বেতন স্কেল কার্যকর না করা পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন সময়ের জন্য ৬০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা প্রদান, কমপক্ষে তিন হাজার টাকা চিকিৎসা ভাতাসহ, যাতায়াত, শিক্ষা সহায়ক, টিফিন ভাতা বৃদ্ধির দাবি জানান নেতারা। এ ছাড়া আগের মতো শতভাগ পেনশন পুনর্বহাল করার দাবি জানানো হয়।