প্রতীকী কফিন নিয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সড়ক দুর্ঘটনায় গ্রিন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী মাহাদি হাসান লিমন নিহতের ঘটনায় প্রতীকী কফিন নিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর মিরপুর- ১০ নম্বর গোল চত্বরে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন গ্রিন ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা। এসময় শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিও জানান। গ্রিন ইউনিভার্সিটির সামনে থেকে মিছিল নিয়ে এসে তারা এখানে বিক্ষোভ করেন।

শিক্ষার্থীরা জানান, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছি। লিমনের হত্যাকারী ঘাতক চালকের বিচার চাই। যেন আর কেউ সড়কে প্রাণ দিতে না হয়। চাইলে কঠোর আন্দোলনে যেতে পারি কিন্ত সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চায় না আমরা।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাঁরা প্রতিবাদ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন।

উল্লেখ্য, রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) রাত ১২টার দিকে পদ্মা অয়েল পাম্পের সামনে ট্রাকচাপায় নিহত হন মাহদী হাসান লিমন (২১)। তিনি গ্রিন ইউনিভার্সিটির টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তাঁর গ্রামের বাড়ি জয়পুরহাট জেলায়। রাজধানীতে উত্তরার কামারপাড়া এলাকায় থাকতেন তিনি।

আশুলিয়ায় আটক ৩ অপহরণকারী



উপজেলা করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম,সাভার
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সাভারের আশুলিয়ায় অপহরণ করে মুক্তিপোন আদায়ের অভিযোগে তিন অপহরণকারীকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত যুবককে উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে বার্তা২৪.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন-অর-রশিদ।

এর আগে বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে আশুলিয়ার কুরগাঁও নতুনপাড়া থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইকরাম (২৫) নামের আরও এক অপহরণকারী পালিয়ে যায়।

আটকরা হল- দিনাজপুর জেলার পাবর্তীনগর থানার মশথপুর গ্রামের মৃত কাজল হোসেনের ছেলে ইয়াছিন (১৯), কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ থানার দিগারহাওলা গ্রামের রুবেল মিয়ার ছেলে অন্তর (২০) ও ঝিনাইদাহ জেলার কালিগঞ্জ থানার মইশা হাটা গ্রামের তোতা মিয়ার ছেলে শাহিন (১৯)। বর্তমানে তারা সবাই আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতো বলে জানা যায়।

অপহৃত যুবকের নাম মাকসুদুল হক (২১)। সে নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার দক্ষিণ সাদার চর গ্রামের আব্দুর রব এর ছেলে। সিঙ্গাপুর গমনের উদ্দেশ্যে বর্তমানে সে আশুলিয়ার গৌরিপুর এলাকার সিবিটি সিঙ্গাপুর ট্রেনিং সেন্টারে ট্রেনিং করছেন।

অপহৃত যুবকের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে  মাকসুদুল তার বন্ধুকে গ্রামের বাড়ি খুলনায় যাওয়ার জন্য গাড়িতে উঠিয়ে দিতে নবীনগর বাসস্ট্যান্ডে আসেন। পরে তাকে একটি গাড়িতে উঠিয়ে দিয়ে ট্রেনিং সেন্টারের দিকে ফিরে যেতে থাকেন। এমন সময় ফুটওভার ব্রিজ পারি দিয়ে সেনাশপিং কমপ্লেক্স এর সামনে নামলে একটি রিকশা পুর্ব পরিকল্পিত ভাবে তার উপর উঠিয়ে দেয়। এতে সে আহত হলে তাকে চিকিৎসার কথা বলে অপহরণ করে কুরগাও এলাকার মাতৃছাড়া স্কুলে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। পরে তার নিকটে থাকা নগদ ১৫শ টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে মোবাইলের বিকাশ বা রকেটের পিন নাম্বার জানতে চায়। পিন নাম্বার না বলায় তাকে বেধর মারপিট করে ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়। 

এরপরে তার পরিবারকে ফোনকে মুক্তিপোন হিসেবে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। পরে তার বোন বিকাশের মাধ্যমে ৪ হাজার ৫শ টাকা পাঠায়। এ খবর শুনে তার বন্ধু জরুরী সেবার নাম্বার ৯৯৯ এ ফোন করে। ফোন পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অপহৃত যুবককে উদ্ধার করে। এ ঘটনার সাথে জড়িত তিন অপরহণকারীকে আটক করে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একজন পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন-অর-রশিদ বার্তা২৪.কমকে বলেন, জরুরী সেবার নাম্বার (৯৯৯) থেকে কল পেয়ে বিকাশ লেনদেনের সূত্রধরে আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকা থেকে অপহৃত যুবককে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে একজন পালিয়ে যায়।

এ সময় তিনি আরও বলেন, আটকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। দুপুরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হবে।

;

নিহত কাজী সালেহ"র বাড়িতে নেমেছে শোকের ছায়া



স্টাফ করেসপটন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ফরিদপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় প্রাইভেটকার পুকুড়ে পড়ে দুই উপপরিদর্শক নিহত হওয়ার ঘটনায় সারাদেশের পুলিশ পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

নিহত দুইজন উপপরিদর্শকের মধ্যে একজন কাজী সালেহ আহমদ। তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মনসুরাবাদ। সড়ক দুর্ঘটনায় গ্রামের সন্তান হিসেবে তার অকাল মৃত্যুতে পুরো এলাকায় চলছে এক শোকের ছায়া।

নিহত উপপরিদর্শক কাজী সালেহ আহমদ এর গ্রামের বাড়ির স্বজন ও সাধারণ গ্রামবাসীদের অনেকেই জানান তিনি ছিলেন কাজী নরুল ইসলামের এক মাত্র  ছেলে। ছোট বেলা থেকেই কাজী সালা উদ্দিন ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী ও শান্ত প্রকৃতির। তার অকাল মৃত্যুকে আমরা কেউ মেনে নিতে পারছি না বলে অনেকের চোখে কণে জ্বল গড়িয়ে পরে। 

উল্লেখ্য, পুলিশের বহন করা মাইক্রোবাস পুকুরের পানিতে পরে দুইজন উপপরিদর্শক নিহত ও এ সময় আহত হন। তাদের একজন উপপরিদর্শক। নিহত উপপরিদর্শক কাজী সালেহ আহমদ এর গ্রামের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় তার নিকট আত্মীয় স্বজন সবাই শেষ বারের মত প্রিয় মানুষটিকে বিদায় জানাতে রাতেই ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

এই বিষয়ে তার চাচাতো বোন জামাই মো. নাজিম মুন্সী বলেন, নিহত পুলিশের উপপরিদর্শক এর লাশ ঢাকায় দাফন করা হবে। যে কারনে গ্রামে বাড়িতে কেউ নেই। তবে তার মৃতুতে গ্রামের সবাই মর্মাহত ও শোকাহত।

মরিয়ম বেগম জানান, আমার ভাতিজা (কাজী সালেহ আহমদ) অত্যন্ত নম্র ভদ্র ছিল। ওর বাবা ঢাকায় একটি ব্যাংকে চাকরি করতো যার কারনে পরিবারের সবাই ঢাকায় থাকতো। হঠাৎ এই ভাবে চলে যাওয়ায় আমরা নির্বাক হয়ে গেছি। সবাই ঢাকা গেছে ঐ খানে মানিকের (কাজী সালেহ আহমদ) দাফন হবে।

গতকালের সড়ক দুর্ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শী মুনসুর আলী বলেন, রশি বেঁধে গাড়িটি উল্টে ইট দিয়ে গ্লাস ভাঙা হয়। এরপর তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দুজনকে মৃত্য ঘোষণা করেন।  কাজী সালেহ আহমদ এর দাফন ও জানাজা আজ দুপুরের জোহরের নামাজের পর অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে জানান তার স্বজনেরা।

;

দুপুর পর্যন্ত কুয়াশা থাকতে পারে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম ঢাকা
কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত কুয়াশা থাকতে পারে

কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত কুয়াশা থাকতে পারে

  • Font increase
  • Font Decrease

মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ও নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিস জানায়, হিমালয়ের পাদদেশের জেলা হিসেবে পরিচিত দিনাজপুরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। বর্তমানে দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলার ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, বুধবার সকাল ৯টায় দিনাজপুর জেলায় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস; যা দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, গতকাল তেঁতুলিয়ায় ১০ দশমিক ২, নওগাঁর বদলগাছীতে ১০ দশমিক ২, চুয়াডাঙ্গায় ১০ দশমিক ৭, রাজশাহীতে ১১ ডিগ্রি, নীলফামারীর সৈয়দপুরে ১১ দশমিক ২, বগুড়ায় ১২, কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ১২, রংপুরে ১২ দশমিক ৩ ডিগ্রি, যশোরে ১২ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

দিনাজপুরে বুধবার সারাদিন সূর্য দেখা যায়নি। ঘন কুয়াশার কারণে দৃষ্টিসীমা কমে গেছে ১০-১২ গজের মধ্যে। দিনের বেলায়ও হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহনগুলোকে চলাচল করতে হয়েছে। এ ছাড়া আলু, টমেটো ও বোরো বীজতলায় মড়ক দেখা দিয়েছে।

দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এএসএম আবু বকর সাইফুল ইসলাম বলেছেন, এ অবস্থায় ফসলের ক্ষেতে ঘন ঘন বালাইনাশক স্প্রে এবং বোরো ধানের বীজতলা ঢেকে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে, তবে সিলেট বিভাগের দুই এক জায়গায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সারাদেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এছাড়া আগামী দুই দিনে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এবং পাঁচদিনে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

আজ ঢাকায় সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৫টা ৩৬ মিনিটে এবং আগামীকাল সূর্যোদয় ভোর ৬টা ৪৩ মিনিটে।

;

আবার উপজেলা পর্যায়ে ওএমএস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম ঢাকা
আজ থেকে ফের উপজেলা পর্যায়ে ওএমএস

আজ থেকে ফের উপজেলা পর্যায়ে ওএমএস

  • Font increase
  • Font Decrease

 

চালের বাজারে অস্থিরতা কাটছেই না। আমন মৌসুমেও হুহু করে বাড়ছে দাম। এতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। এ অবস্থায় আজ বৃহস্পতিবার থেকে উপজেলা পর্যায়ে ডিলারের মাধ্যমে আবার ওএমএসে চাল ও আটা বিক্রি শুরু করছে সরকার।

এর আগেও বিভিন্ন সময়, বিশেষ করে সংকটকালে উপজেলা পর্যায়ে ওএমএস চালু ছিল। সর্বশেষ গত নভেম্বরের মাঝামাঝি উপজেলা পর্যায়ে এটা বন্ধ হয়। চাল ও আটার দাম স্বাভাবিক রাখার জন্য এটা চালু করা হলো।

বুধবার ঢাকায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনে কৃষি ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সেশনে যোগদান শেষে সাংবাদিকদের ওএমএস চালুর কথা জানান কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক ও খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, আজ বৃহস্পতিবার থেকে উপজেলা পর্যায়ে এক হাজার ৭৬০ জন ডিলারের মাধ্যমে ওএমএসে চাল ও আটা বিক্রি শুরু হবে। চাল ৩০ টাকা কেজি ও আটা ১৮ টাকা কেজিতে দেওয়া হবে। তবে সরকারিভাবে এ চালের আমদানি খরচ ৩৬-৩৭ টাকা।

তিনি বলেন, চালের মজুত সর্বকালের সর্ববৃহৎ। পচার মতো চাল গোডাউনে নেই। মজুত চাল মানসম্পন্ন, ফলে মানুষ খাবে।

;